পর্যটকদের ভিড়ে মুখর টাঙ্গুয়ার হাওর

পর্যটকদের ভিড়ে মুখর হয়ে উঠেছে সুনামগঞ্জের
টাঙ্গুয়ার হাওর। ভিড় বাড়ছে শিমুল বাগান,হাওর বিলাস,পাহাড় বিলাসসহ একাধিক পর্যটন স্পটে।
প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করতে প্রতিদিনই ভিড় করছেন নানা বয়সি মানুষ। তবে আবাসন
সুবিধা না থাকার পাশাপাশি জীববৈচিত্র রক্ষায় শব্দ দূষণ বন্ধের দাবি জানালেন
পর্যটকরা।

হাওরকন্যা বলা হয় সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়াকে। সারি সারি হিজল,করচ আর নলখাগড়ার বন। তাহিরপুর ও ধর্মপাশা উপজেলার ১৮টি
মৌজাজুড়ে ১২ হাজার ৬৫৫ হেক্টর আয়তনের হাওরে একসময় ১৮০টি বিল ছিল। এখন কমে তা
দাড়িয়েছে ১০৯টিতে। ভেতর জালের মতো ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে অসংখ্য খাল ও নালা। ভারতের
মেঘালয় পাহাড় থেকে ৩৮টি ঝরনা মিশেছে টাঙ্গুয়ার হাওরে। ৮৮টি গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ
হাওরের ওপর নির্ভরশীল।

এছাড়া জনপ্রিয় হয়ে উঠছে বারেকটিলা,যাদুকাটা নদী,সীমান্ত ছড়া,নিলাদ্রী লেক, শিমুল বাগান,হাওর বিলাস,পাহাড় বিলাসসহ একাধিক পর্যটন
স্পট। শুক্র-শনিবার বন্ধের দিন থাকায় 
তিনগুন বাড়ে  পর্যটক।

তবে আবাসন সুবিধা না থাকার অভিযোগ দর্শনার্থীদের।
হাওরের জীববৈচিত্র রক্ষায় শব্দ দূষণ বন্ধেরও দাবি জানালেন তারা।

স্বাস্থ্যবিধির ৮টি নির্দেশনা মানতে পর্যটকদের
বাধ্য করা হচ্ছে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

দেশের অন্যতম জীববৈচিত্র্যে সমৃদ্ধ জলাভূমি
রক্ষায় দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানিয়েছেন দর্শনার্থী ও স্থানীয়রা।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author