সিলেটে নতুন গ্যাসক্ষেত্রের সন্ধান

সিলেটের জকিগঞ্জে দেশের ২৮তম গ্যাসক্ষেত্রের সন্ধান পেয়েছে বাপেক্স। এতে উত্তোলনযোগ্য গ্যাস মজুদ আছে ৫০ বিলিয়ন ঘনফুট। আর প্রতিদিন উত্তোলন করা যাবে প্রায় ১০ মিলিয়ন ঘনফুট। যেখান থেকে ১৩ বছর পর্যন্ত গ্যাস উত্তোলনের সম্ভাবনা দেখছেন জ্বালানি ও বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

জাতীয় জ্বালানি নিরাপত্তা দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত সেমিনারে জানানো হয়, দেশে মোট জ্বালানি চাহিদার ৮১ দশমিক ৬ শতাংশই স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত হয়।

আর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বললেন, নিরবচ্ছিন্ন ও সাশ্রয়ী মূল্যে গ্যাস সরবরাহের পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। খুব শিগগিরই গ্যাস-বিদ্যুৎকে অটোমেশনের আওতায় আনার পরিকল্পনাও জানান তিনি। আর জ্বালানি বিশেষজ্ঞদের মতে এখনও গ্যাসক্ষেত্র অনুসন্ধান, বিতরণ আর আমদানি ব্যবস্থাপনায় ঘাটতি রয়েছে।

১৯৭৫ সালের ৯ই আগস্ট ৫টি গ্যাসক্ষেত্র জাতীয়করণ করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ২০১০ সাল থেকে দিনটিকে জাতীয় জ্বালানি নিরাপত্তা দিবস হিসেবে পালন করছে সরকার।

দেশের ২৭টি গ্যাসক্ষেত্র থেকে প্রতিদিন উত্তোলন হচ্ছে ২৩০ কোটি ঘনফুট গ্যাস। আরো একশ কোটি ঘনফুট আমদানি করা হলেও দিনে ঘাটতি থেকে যায় ৪০ কোটি ঘনফুট।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author