করোনার প্রকোপে বিভিন্ন জেলায় সেবা সংকট

করোনার প্রকোপ বাড়ায় দেশের
বিভিন্ন জেলা- উপজেলার হাসপাতালগুলোতে দেখা দিয়েছে সেবা সংকট। শয্যা আর জরুরীসেবা
অপ্রতুল। ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে করোনাসহ অন্যান্য রোগাক্রান্তদেরও । ফলে চাপ বাড়ছে
রাজধানীর হাসপাতাল গুলোতে। এদিকে, করোনায় অক্সিজেন লেবেল ৯০ শতাংশ থাকলে বাড়িতে
চিকিৎসা নেয়া আর অন্যান্য রোগীদের টেলিমেডিসিনের ওপর জোর দেয়ার পরামর্শ
চিকিৎসকদের।

করোনা রোগী বাড়ায় কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল  হাসপাতালের বর্হিবিভাগ বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন কুষ্টিয়া, চুয়াডাংগা, মেহেরপুর, ঝিনাইদহ এবং রাজবাড়ী  থেকে আসা রোগীরা। শয্যা না পেয়ে ছুটতে হচ্ছে রাজধানীতে।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক জানান চাপ কমাতে মোবাইলে
চিকিৎসা সেবা নিতে বলা হচ্ছে রোগীদের।

এদিকে , চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে রোগীদের চাপ সামলাতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসক আর নার্সরা। হাসপাতালের ৩য় তলায় নতুনভাবে করোনা ওয়ার্ড চালু করা হলেও শয্যা খালি নেই একটিও। ফলে করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডে গাদাগাদি করে থাকতে হচ্ছে রোগীদের।

সীমাবদ্ধতার কথা স্বীকার করে, হোম আইসোলেশন, স্বাস্থ্যবিধি
রক্ষা কার্যক্রম আর টিকা গ্রহণের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছেন হাসপাতাল কর্তপক্ষ।

সীমান্ত ঘেষা জেলা জয়পুরহাটেও করানার সংক্রমণ বাড়ছে , অথচ জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে নেই পিসিআর ল্যাব আর অক্সিজেন সুবিধা। বেডের সংকটে ভোগান্তিতে রোগীরা।

পিসিআর ল্যাবের জন্য আবদন জানিয়েছেন হাসপাতালর
তত্বাবধায়ক।

হাসপাতালগুলোর বর্হিভিাগের চিকিৎসা সেবা চালু আর সেবা
সুবিধা বাড়ানোর দাবি জনসাধারণের।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author