চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে প্রস্তুত হচ্ছে লিকুইড অক্সিজেন প্ল্যান্ট

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে প্রস্তুত হচ্ছে ৫১ লাখ ৬০ হাজার মিলিলিটার ক্ষমতা সম্পন্ন লিকুইড অক্সিজেন প্ল্যান্ট। ইতোমধ্যে প্ল্যান্টটির ৯০ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। অচিরেই করোনাসহ অন্য রোগীরা এর মাধ্যমে অক্সিজেন সেবা পাবেন বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

চাঁদপুরে করোনাক্রান্ত মুমূর্ষু রোগীদের অক্সিজেন জোগাড় করতে হচ্ছে কুমিল্লা থেকে। এতে ভোগান্তি এবং খরচ দুটোই বেড়েছে। এ দুটি যন্ত্রণা কমাতে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে লিকুইড অক্সিজেন প্ল্যান্ট বসানোর কাজ শুরু হয়েছে।

ইউনিসেফের অর্থায়নে এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে
প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে লিকুইড অক্সিজেন প্ল্যান্ট স্থাপনের ভবন এবং সংরক্ষণ
ট্যাংকের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। স্বয়ংক্রিয় নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থাসহ কিছু
কাজ বাকি যা, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে শেষ হবার কথা।

মূল প্ল্যান্টটি ছয় হাজার লিটারের। এটি যখন অক্সিজেনে রূপান্তর হয়, তখন ৫১ লাখ ৬০ হাজার মিলিলিটার সমপরিমাণ হয়ে যায়। এটির কাজ সম্পন্ন হলে রোগীরা সহজেই লিকুইড অক্সিজেন সেবা পাবেন বলে জানান, হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. সুজাউদ্দৌলঅ রুবেল।

প্রকল্পের আওতায় চাঁদপুরসহ দেশের প্রায় ৩০টি
জেলায় ৫১ লাখ ৬০ হাজার মিলিলিটারের ধারণ ক্ষমতার লিকুইড অক্সিজেন প্লান্ট বসানো
হচ্ছে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author