তিনশ বছরের পুরনো ভবন থেকে মাটির তৈরি মটকা আবিষ্কার ঘিরে বন্দরনগরী চট্টগ্রামে কোলাহল শুরু হয়েছে। চট্টগ্রামের পাথরঘাটায় মটকার উপর চুন সুরকি আর পোড়া মাটির আস্তরণ দিয়ে তোলা হয়েছে কর্ণফুলি নদীতীরে একতলা ভবন। মোগল স্থাপত্য তাজমহলের আদলেই গড়ে তোলা হয় ভবনটির দেয়াল।

জানাযায়, চট্টগ্রামের পাথরঘাটায় নজুমিয়া লেনে তিনশ বছর আগে ভবনটি নির্মাণ করেন বক্সিরহাটের প্রতিষ্ঠাতা হাজী শরিয়ত উল্লাহ। বনেদি এ ব্যবসায়ী সেসময় বার্মার রেঙ্গুন শহর থেকে নৌপথে আনেন মাটির তৈরি এসব মটকা। ভবনের পাশে রয়েছে গভীর একটি কুয়ো।

মাটির নিচে সারি সারি কয়েকশো মটকা দেখে প্রথমে সবাই ভেবেছিলেন মটকাগুলো গুপ্তধনে ভর্তি। পরে ঘোর কাটে সবার। ভাগ্যে জোটে ঠনঠন গোপাল। সবই ফাঁকা, অন্তঃসারশূন্য।

হাজী শরিয়ত উল্লাহর বংশধররা জানালেন, ভূমিকম্প ও জলোচ্ছ্বাস থেকে রক্ষায় এসব মটকা ব্যবহার করা হয়েছিল।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোমিনুর রহমান জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ঐতিহ্যবাহী বাড়িটি প্রত্নতাত্বিক নিদর্শন হিসেবে সংরক্ষণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

আর মটকাগুলোকে ঐতিহাসিক সংগ্রহ হিসেবে যাদুঘরে সংরক্ষণ করে রাখার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। তারপরও নগরবাসীর দাবি ঐতিহাসিক নিদর্শন হিসেবে সংরক্ষণ করে রাখার।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author