এক বছরের মধ্যে টানা তিন দফা নির্বাচনের পরও সরকার গঠনের মত আসন পায়নি বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর নেতৃত্বাধীন ডানপন্থী দল লিকুদ পার্টি। ফলে সরকার গঠনে বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে জোট গঠনেরও চেষ্টা করেছিলেন নেতানিয়াহু। বিরোধী দলগুলোকে কাছে টানতে গত ১০ মে থেকে গাজায় হামলা করে বসেন নেতানিয়াহু। কিন্তু ফিলিস্তিনি পুরনো এই কৌশল এবার কাজে দেয়নি। 

এরইমধ্যে নেতানিয়াহুকে এড়িয়ে ইসরায়েলে নতুন জোট সরকার গঠনে ঐকমত্যে পৌঁছেছে বিরোধী দলগুলো। স্থানীয় সময় বুধবার (২ জুন) দেশটির প্রধান বিরোধী দলের নেতা ইয়ার লাপিদ দেশটির প্রেসিডেন্ট রিউভেন রিভলিনকে ঐক্যমত্যের খবর জানান। এর মাধ্যমে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর টানা ১২ বছরের শাসনের অবসান হতে চলেছে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মধ্যপন্থী দল ইয়েশ আতিদের নেতা ইয়ার লাপিদ
বুধবার এক বিবৃতি জোট সরকারে গঠনে ঐক্যমত্যের কথা জানিয়েছেন। ঐক্যমত্য
অনুযায়ী, প্রথম দুই বছর কট্টর ডানপন্থী দল ইয়ামিনা পার্টির প্রধান নাফতালি
বেনেত এবং পরবর্তী দুই বছর লাপিদ প্রধানমন্ত্রী হবেন। 

অবশ্য এর আগে পার্লামেন্টে ভোটাভুটির মাধ্যমে তাদের জোটের সংখ্যাগরিষ্ঠতা
প্রমাণ করতে হবে। সেটি প্রমাণে ব্যর্থ হলে নতুন করে নির্বাচন অনুষ্ঠিত
হবে। 

দেশটিতে  ২০০৯ সাল হতে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু একটানা ক্ষমতায় আছেন। এর
আগে ১৯৯০ এর দশকেও তিনি তিন বছর প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ৭১ বছর বয়সী
নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলায় বিচার চলছে। 

প্রসঙ্গত, ইসরায়েলের পার্লামেন্ট ‘নেসেট’-এ মোট আসন সংখ্যা ১২০টি। সরকার গঠনের জন্য ৬১টি আসনের প্রয়োজন হয়। 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author