৫০ বছরে বদলেছে দেশের অর্থনীতি

হাটি হাটি পা পা করে অর্ধশত বছরে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ। ৭০ দশকে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশের সামষ্টিক অর্থনীতি পর্যালোচনায় বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদনে দেখা যায়, ১৯৭০ সালে জিডিপিতে কৃষিখাতের অবদান ছিল ৫৯ দশমিক ৪ শতাংশ। আর শিল্প ও সেবাখাতের অবদান যথাক্রমে ৬ দশমিক ৬ শতাংশ ও ৩৪ শতাংশ।

সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বদলেছে দেশের অর্থনীতি। কৃষির জায়গা নিয়েছে শিল্প আর সেবা। মাথাপিছু আয় বেড়েছে ১৬ গুণ। উন্নয়নের মহাসড়কে যেতে কাজ চলছে ১০ মেগা প্রকল্পের। মধ্য আয়ের দেশ থেকে উন্নয়নশীল হওয়ার পর উন্নত দেশ হওয়ার স্বপ্ন বাংলাদেশের। স্বাধীনতার ৫০ বছরের পথপরিক্রমায় অর্থনৈতিক ও সামাজিকভাবে বাংলাদেশের অগ্রগতি চোখে পড়ার মত।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, স্বাধীনতার অর্ধশতাব্দীতে রেকর্ড রিজার্ভ, রেমিট্যান্স, দৃশ্যমান পদ্মাসেতু ও মেট্রোরেল, উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতিসহ অনেক অর্জন বাংলাদেশের। আর অর্থনীতিবিদরা বলছেন, দারিদ্র বিমোচন, মাথাপিছু আয়, স্বাস্থ্য-শিক্ষার বিকাশ, মৃত্যুহার কমানোসহ নিজপায়ে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ।

বদলে
যাওয়া সমৃদ্ধ-স্বনির্ভর বাংলাদেশ আজ বিশ্বে পরিচিতি পেয়েছে উদীয়মান অর্থনীতির দেশ
হিসেবে। পাকিস্তানের কাছ থেকে স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনে আর্থ-সামাজিক প্রায়
সব সূচকেই এগিয়ে আছে বাংলাদেশ।

বিদেশিদের
দৃষ্টিতে স্বাধীনতা-পরবর্তী বাংলাদেশ ছিল এক তলাবিহীন ঝুঁড়ি। কিন্তু দিনে দিনে
সামাজিক,রাজনৈতিক কাঠামো
পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে পালটে গেছে অর্থনৈতিক কাঠামোও ।

অপার
সম্ভাবনা নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সবার সহযোগিতায় নির্দিষ্ট সময়ের
আগেই লক্ষ্যে পৌঁছবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

                                                
গ্রাফিক্স

                                           বিশ্বব্যাংকের
তথ্যমতে,  

                                      ১৯৭০ সালে
জিডিপিতে অবদান

                                            কৃষিখাত
৫৯.৪%

                                             শিল্পখাত
 ৬.৬%

                                             সেবাখাত
৩৪%

                               স্বাধীনতার ৫০
বছরে বেড়েছে ১৬ গুন

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author