সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম দু’দিনেই বদলে গেছে ঢাকার বায়ু

সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম
দু’দিনেই বদলে গেছে ঢাকার বায়ু। নাভিশ্বাস তোলা সেই দূষণ, অনেকটা কমেছে। পরিবেশ
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহের চেয়ে বর্তমানে ঢাকায় বায়ুদূষণ কমেছে ৫০
থেকে ৬০ ভাগ। এমন নির্মল বাযু ধরে রাখতে লকডাউন তোলার আগেই দূষণের উৎস বন্ধে প্রয়োজনীয়
পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ দেন তারা।

বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত বায়ুর
শহর এখন ভিন্ন চেহারায়। দমবন্ধ করা ধুলোবালি আর কালো ধোঁয়ার পরিমাণ কমে যাওয়ায়
পাল্টে গেছে রাজধানী ঢাকার বায়ুমান। চারদিকের সবুজ এবং নির্মল
স্নিগ্ধতাও জানান দিচ্ছে সেই পরিবর্তন।

রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা একেবারেই
হাতেগোনা। করোনাকালে লকডাউন নামক এমন নিস্তব্ধতা, পরিবেশের জন্য যেন আশির্বাদ হয়ে
এসেছে। খুব জরুরি প্রয়োজনে রাস্তায় নামা লোকজনও বললেন মুগ্ধতার কথা।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক
বায়ুমান যাচাই বিষয়ক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এয়ার ভিজ্যুয়াল এবং দেশিয় গবেষণা
প্রতিষ্ঠান ক্যাপসের পরিসংখ্যান বলছে, ১৪ এপ্রিল থেকে ঢাকার বায়ুমানে উন্নতি ঘটছে। একিউআই
ইনডেক্সে বায়ুমানের গড় সূচক থাকছে ১শ’র আশপাশে। স্বাভাবিক সময়ে যার মাত্রা ছাড়িয়ে
যায় ৩ থেকে ৪শ পর্যন্ত।

কিন্তু মুক্ত বাতাসে প্রাণ ভরে
নিশ্বাস নেয়ার এই সুযোগ তো সাময়িক। যদিও এই বিশেষজ্ঞ মনে করছেন, বিনা চেষ্টায় বায়ু
দূষণ রোধের যে সুযোগ তৈরি হয়েছে তা কাজে লাগানো উচিৎ।

বায়ুমান ঠিক রাখতে নির্মাণকাজের
কারণে সৃষ্ট ধুলোবালি, মেয়াদোত্তীর্ণ যানবাহনসহ ইটভাটটার কালো ধোয়া নিয়ন্ত্রণের
ওপর গুরুত্বারোপ করেন বিশেষজ্ঞরা।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author