লকডাউনে জরুরি সেবা সংশ্লিষ্ট ব্যাংকিং সেবা চালু থাকবে

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউনে সব ব্যাংক বন্ধ থাকবে। তবে এই এক সপ্তাহ লকডাউনের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখতে শুধুমাত্র বন্দর কেন্দ্রীক আর্থিক প্রতিষ্ঠান তথা ব্যাংক খোলা থাকবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। 

সোমবার (১২ এপ্রিল) সন্ধ্যায় এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ সিদ্ধান্ত জানায় বাংলাদেশ ব্যাংক। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সর্বাত্মক লকডাউনে’র
সময় ব্যাংক শাখার পাশাপাশি আর্থিক সেবা দেওয়া ব্যাংকের সকল উপ-শাখা, বুথ
ব্যাংকিং, এজেন্ট ব্যাংকিং সেবাও বন্ধ থাকবে। তবে সার্বক্ষণিক খোলা থাকবে
এটিএম, ইন্টারনেট ব্যাংকিংসহ অনলাইন সব সেবা। 

এতে আরও বলা হয়, এই সময়ে সমুদ্র, স্থল ও
বিমানবন্দর এলাকার ব্যাংক শাখা আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রমের জন্য খোলা রাখা
যাবে। পাশাপাশি রপ্তানিকারকদের প্রয়োজনে বৈদেশিক মুদ্রায় লেনদেন করা শাখা
(এডি) নির্দিষ্ট দিনের জন্য খোলা রাখা যাবে। তবে বাংলাদেশ ব্যাংক কোনো
ব্যাংক খোলা রাখার ব্যাপারে নির্দেশনা দেবে না।

এর আগে সকালে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে এক
সপ্তাহের জন্য সর্বাত্মক লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।
প্রজ্ঞাপনে লকডাউনের আওতায় সব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার ঘোষণা
দেওয়া হয়।

সোমবার (১২ এপ্রিল) দুপুরে প্রজ্ঞাপন জারির
পর ব্যাংক পুরোপুরি বন্ধ রাখা যাবে কি না, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বৈঠকে
বসে বাংলাদেশ ব্যাংক।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author