লকডাউনের মধ্যেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চালু রয়েছে পোশাক কারখানা

করোনারোধে লকডাউনের মধ্যেই সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে চালু রাখা হয়েছে পোশাক কারখানা। অর্ধেক জনবল দিয়ে কারখানা চালানোর নির্দেশনা থাকলেও উৎপাদন ঠিক রাখার স্বার্থে কর্মঘণ্টা বিন্যাস করে সবাইকে নিয়েই কাজ চলছে বলে জানান শিল্পমালিকরা।

করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ অতীতের সব রেকর্ড ভঙ্গ করে
চলছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ১৮টি নির্দেশনাসহ লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। এতে কঠোরভাবে
স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৫০ শতাংশ জনবল নিয়ে অফিস-কারখানা চালানোর কথাও বলা হয়েছে।

দেশের রফতানি আয়ের ৮৪ শতাংশ অবদান রাখছে তৈরি পোশাকখাত। এ খাতে
কর্মরত বিশাল জনগোষ্ঠি। করোনার প্রথম ধাক্কার লোকসান কাটিয়ে উঠতে না উঠতে শুরু
হয়েছে দ্বিতীয় ঢেউ। তাই অর্থনীতি সচল রাখতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে বেশিরভাগ করাখানা। সুরক্ষা
ব্যবস্থাপনায় সন্তুষ্ট শ্রমিকরা। 

পোশাক কারখানা বন্ধ রাখলে অর্জিত হবে না রপ্তানি
লক্ষ্যমাত্রা। তাই সরকারি নির্দেশ মতো স্বাস্থ্য প্রটোকল মেনেই কারখানা চলছে। তবে
৫০ শতাংশ জনবল দিয়ে কাজ চালানো সম্ভব নয় বলে জানান ব্যবসায়ী নেতারা।

আর অর্থনীতিবিদরা বলছেন, রপ্তানি আয় ধরে রাখতে, শ্রমিকদের
টিকার আওতায় আনাসহ শতভাগ স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হবে।

প্রথম দফায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলায় কমসংখ্যক শ্রমিকই
করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাই পূর্বের অভিজ্ঞতা মেনে কাজ করার কথা জানান
সংশ্লিষ্টরা।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author