করোনায় নাজুক ভারত ও ব্রাজিল

বছর ঘুরলে করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হবে, এমনটা ধারণা করা হলেও বাস্তবে হয়েছে উল্টোটা। সর্বোচ্চ সতর্কতার পরও বিশ্বের কয়েকটি দেশে অনিয়ন্ত্রিত হয়ে পড়েছে পরিস্থিতি। সবচেয়ে খারাপ সময় পার করছে ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। ভাইরাসের তাণ্ডবে বিপর্যস্ত ব্রাজিলে সবশেষ একদিনে ৪ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে যা এ যাবতকালের সর্বোচ্চ। বলা যায় দেশটির স্বাস্থ্য ব্যবস্থা একবারে ভেঙ্গে পড়তে শুরু করেছে। হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা অনেকেই অপেক্ষারত অবস্থায় ঢলে পড়ছে মৃত্যুর কোলে। পরিস্থিতি এতোটাই খারাপ যে, সবশেষ একদিনে প্রাণ গেছে ৪ হাজার ২১১ জনের। এখন পর্যন্ত এটাই একদিনে মৃত্যুর সবোর্চ্চ রেকর্ড। 

বিশ্বজুড়ে করোনায় ২৮ লাখ ৮৭ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ গেছে। আক্রান্ত ছাড়িয়েছে ১৩ কোটি ৩০ লাখ ৬০ হাজার।

বাংলাদেশের প্রতিবেশি ভারতের পরিস্থিতিও বেশ নাজুক। একদিনে শনাক্ত হয়েছে রেকর্ড এক লাখ ১৫ হাজারের বেশি মানুষ। তিন দিনের ব্যবধানে দ্বিতীয়বারের মতো লাখ ছাড়ানোর পর করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। সংক্রমণরোধে সবাইকে আরও সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

যুক্তরাষ্ট্র এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃতের দেশ। আগামী ১৯ এপ্রিলের মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক সব নাগরিকের ভ্যাকসিন নিশ্চিতের ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

একদল গবেষক জানান, করোনা থেকে
সেরে ওঠার পর প্রতি তিনজনের একজন মানসিক অবসাদ, খিটখিটে মেজাজ, স্মৃতিভ্রংশসহ নানা
সমস্যায় ভোগেন। এমনকী স্ট্রোকেরও শিকার হন।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author