করোনা নমুনা পরীক্ষায় নানা ভোগান্তি

করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির মধ্যে নমুনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে অনেক হাসপাতালেই একেবারে লেজেগোবরে অবস্থা। নমুনা দিতে এসে দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে ঘণ্টার পর ঘণ্টা। হাতে গোনা কয়েকজন ছাড়া কারোরই নেই স্বাস্থ্যবিধির বালাই। করোনা ইউনিটে শয্যা ফাঁকা না থাকায় মুমূর্ষু রোগীদের নিয়ে করিডোর বা বারান্দায় অপেক্ষা করছেন স্বজনেরা। এ নিয়ে জানতে চাইলে নিজেদের সীমাবদ্ধতার কথা জানান মুগদা হাসপাতালের সহকারী পরিচালক।

ট্রাকের উপরে স্বজনদের এমন অপেক্ষা, হাসপাতাল থেকে প্রিয় মানুষটি নিয়ে বিদায় যাত্রার দৃশ্য এখন নিত্য দিনের ব্যাপার। আর কিছুক্ষণ পর পর সাইরেন বাজিয়ে অ্যাম্বুলেন্স আসছে করোনাক্রান্ত রোগী। এমন চিত্র এখন রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালসহ মুগদা জেনারেল হাসপাতালের মত কোভিড হাসপাতালে।

করোনা পরীক্ষাতেও ভোগান্তির শেষ নেই। কড়া রোদে দীর্ঘলাইনে ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে নমুনা দিতে আসা ব্যক্তিদের। এরপরও অনেককে ফিরতে হচ্ছে খালি হাতেই। মুমূর্ষ অবস্থায় আসা রোগীদেরও সিটের জন্য অপেক্ষা করতে হচ্ছে ঘন্টার পর ঘন্টা। আর আইসিইউ যেন সোনার হরিণ।

লাইনে নেই শারীরিক দূরত্বের
বালাই। কে কার আগে যাবেন, তা নিয়ে চলে হৈ-হুল্লোড়। নমুনা পরীক্ষায় অব্যবস্থাপনা
দূর করার দাবি জানান ভুক্তভোগীরা।

রোগীর চাপ সামলাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ ও চিকিৎসা সেবার সার্বিক অবস্থা জানান মুগদা হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. নুরুল ইসলাম। করোনার নতুন ভেরিয়্যান্টে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাই এখন বেশি বলেও জানান এ চিকিৎসক।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author