আশাশুনিতে বেড়িবাঁধ ভেঙে চারটি গ্রাম প্লাবিত

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে জোয়ার ভাটায় বেড়িবাঁধ ভেঙে চারটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। উপকূলবর্তী আশাশুনিবাসীর দুঃখ দুর্দশা যেন কাটছেই না। নদীর জোয়ারের পানির উচ্চতা বেড়ে ঘরবাড়ি, ফসলি জমি ও মাছের ঘেরে নদীর লোনাপানি ঢুকে পড়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন সদরের দয়ারঘাট, দক্ষিণপাড়া, আশাশুনি গ্রামের মানুষ।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফলতিতে হচ্ছে না স্থায়ী ও টেকসই বেড়িবাঁধ। এতে বার বার ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এলাকাবাসী।

আশাশুনি সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সেলিম রেজা মিলন জানান, খোলপেটুয়া নদীর দয়ারঘাট এলাকার বেড়িবাঁধটি দীর্ঘদিন ধরে ভঙ্গুর অবস্থায় ছিল। ইতোমধ্যে শতাধিক বাড়ি এবং অর্ধশতাধিক মৎস্য ঘের প্লাবিত হয়েছে।

আর এজন্য প্রকল্প কাজের জটিলতাকে দায়ী করেছেন সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সুধাংশু কুমার সরকার। তবে, দ্রুতই তা সমাধানের আশা জানান তিনি।

শুধু আশ্বাস নয়, দ্রুত স্থায়ী বেড়িবাঁধ নির্মাণ করা হবে, এমনটাই আশা করছেন ভুক্তভোগীরা।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author