বগুড়া ও ভৈরবে জমে উঠেছে নির্বাচনি প্রচারণা

জমজমাট নির্বাচনি প্রচারণা চলছে দেশের বৃহত্তম বগুড়া পৌরসভায়। উন্নয়নের ফুলঝুরি নিয়ে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। নাগরিক সুবিধা-নিশ্চিতে অঙ্গীকার চাইছেন ভোটাররা। শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় জমে উঠেছে কিশোরগঞ্জের ভৈরবও। এদিকে, নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সার্বিক প্রস্তুতি নিয়েছে প্রশাসন।

১৮৭৬ সালে প্রতিষ্ঠিত দেশের প্রাচীন ও বৃহৎ পৌরসভা বগুড়া। আয়তনের সঙ্গে জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও বাড়েনি নাগরিক সুবিধা। কাগজে কলমে প্রথম শ্রেণীর হলেও উন্নয়ন বঞ্চিত পৌরবাসী। যানজট শহরবাসীর নিত্যসঙ্গী,খানাখন্দে ভরা রাস্তাঘাট, অপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা,সামান্য বৃষ্টিতেই সড়কে হাটুপানি, যত্রতত্র ময়লা আবর্জনার স্তুপ প্রধান সমস্যা।

ভৈরবে মোট ভোটার ৭৯ হাজার ৭শ ১৩ জন। ২১টি ওয়ার্ডে পৌরসভার পরিধি বাড়লেও বর্ধিত এলাকায় নেই উন্নয়নের ছোঁয়া। নির্বাচনের আগে প্রার্থীদের সামনে এসব অভিযোগ ভোটারদের। ৭০ বর্গকিলোমিটারের পৌরসভায় সমস্যা সমাধানের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোটারদের মনজয়ের চেষ্টা চালাচ্ছেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা।

নির্বাচন সুষ্ঠ নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ন করতে পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানান রিটার্নিং কর্মকর্তা মো: মাহবুব আলম শাহ্।

এদিকে ভোটারদের মন জয়ে উন্নয়নের নানা প্রতিশ্রুতি নিয়ে ছুটছেন কিশোরগঞ্জের ভৈরব নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। রাস্তা-ঘাট উন্নয়ন, সুষ্ঠু ড্রেনেজ ব্যবস্থা, মাদক, ছিনতাই, সন্ত্রাস নিমূর্লে সৎ ও যোগ্য প্রাথীকে বেচে নিতে চান ভোটাররা। ভোটারদের চাওয়া-পাওয়ার হিসেব মিলিয়ে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন প্রার্থীরা।

বগুড়ায় ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৭৫ হাজার ৮৭০ জন। দুটি পৌরসভাতেই ভোটগ্রহণ হবে ইভিএম-এ।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author