শুরু হলো করোনার টিকাদান কার্যক্রম

প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে দেশে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে করোনাভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রম। এ সময় প্রধানমন্ত্রী করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে একটি রাজনৈতিক দলের সমালোচনা করে বলেন, কিছু মানুষ আছে যারা সবসময় কিছুই ভাল লাগে না জাতীয় রোগে ভোগেন।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে কোভিড ১৯ ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সরকার প্রধান শেখ হাসিনা।

রুনু ভেরোনিকা কস্তাকে টিকা দেওয়ার মধ্য দিয়ে সারা দেশে করোনাভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হলো। এদিন আরও টিকা নেন ডা. আহমেদ লুৎফুল মবিন, চিকিৎসক কুর্মিটোলা; অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা, অতিরিক্ত মহাপরিচালক, স্বাস্থ্য অধিদফতর; দিদারুল ইসলাম, ট্রাফিক মতিঝিল বিভাগ;  ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম ইমরান হামিদ, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

প্রথম যারা টিকা পাবেন, তাদের মধ্যে ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী ছাড়াও পুলিশ, সেনাবাহিনী, গণমাধ্যমকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ থাকবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) ঢাকার পাঁচটি হাসপাতালের ৪০০ থেকে ৫০০ জনকে টিকা দেওয়া হবে। সারাদেশে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি।

আজ প্রধানমন্ত্রী টিকা উদ্বোধনের পর থেকেই টিকার নিবন্ধন শুরু হয়ে যায়। এ ছাড়া স্বাস্থ্যকেন্দ্রে গিয়েও টিকার নিবন্ধন করা যাবে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author