আন্তর্জাতিক বাণিজ্যকে সুসংহত করতে হবে

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সহায়তায় এশিয়া সহযোগিতা সংলাপের অন্তর্ভুক্ত দেশসমূহে একটি টেকসই এবং স্থিতিশীল সরবরাহ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যকে আরও সুসংহত করার আহ্বান জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

নতুন স্বাভাবিক, নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত পর্যটন শীর্ষক এসিডি’র ১৭তম মন্ত্রী পর্যায়ের ভার্চুয়াল বৈঠকে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এ সময় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোভিড-১৯ মহামারি উদ্ভূত ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় দেশীয় পর্যটনগুলোর উন্নয়ন একটি অন্যতম সম্ভাব্য উপায় হতে পারে। তিনি জানান, কোভিড-১৯ মহামারির ফলে ২০২০ সালে বাংলাদেশের এই উদীয়মান পর্যটন খাতের মোট ক্ষতি প্রায় ১৮০ বিলিয়ন টাকা।

পর্যটন খাতকে পুনরুজ্জীবিত করার লক্ষ্যে সরকার ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে প্রায় ৩৬৮৮ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে উল্লেখ করে শাহরিয়ার আলম বলেন, বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী হস্তশিল্প, প্রাকৃতিক সম্পদ এবং ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক স্থাপনাগুলো পর্যটন শিল্পকে সমৃদ্ধ করেছে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, সকলের সদিচ্ছাই পারে বিশ্ব থেকে সন্ত্রাসবাদ এবং গণহত্যার মতো সকল প্রকার সহিংস কার্যক্রম বন্ধ করতে।

তুরস্কের আয়োজনে ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। বৈঠকে প্রতিমন্ত্রী রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিশ্ব নেতৃবৃন্দকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। রোহিঙ্গাদের উপস্থিতিতে কক্সবাজারের পর্যটন এলাকা পরিবেশগত বিপর্যয়ের সম্মুখীন হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, ২০১৭ সালে দু’দেশের মধ্যে সম্পাদিত চুক্তির ভিত্তিতে মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন শুরু করতে অঙ্গীকারবদ্ধ বলে জানিয়েছেন দেশটির আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী কাইয়া টিন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনকে লেখা এক চিঠিতে কাইয়া টিন এসব কথা বলেন। শুক্রবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author