জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশন বসছে ১৮ জানুয়ারি

একাদশ জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশন বসছে সোমবার (১৮ জানুয়ারি)। জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত এই অধিবেশনকে শীতকালীন অধিবেশনও বলা হয়। বছরের প্রথম হওয়ায় রীতি অনুযায়ী অধিবেশনের প্রথম কার্যদিবসে বক্তব্য দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। করোনাকালীন পরিস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এই অধিবেশনেও পূর্বের তিনটি অধিবেশনের মতো আরোপ করা হয়েছে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি।

সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টায় বসবে একাদশ জাতীয়
সংসদের ২০২১ সালের প্রথম অধিবেশন। এর আগে সংসদ কমিটির বৈঠকে নির্ধারণ করা
হবে অধিবেশনের সময়কাল ও দেওয়া হবে সভাপতিমণ্ডলী (প্যানেল মেম্বার) মনোনয়ন।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে এবারের অধিবেশনেও নানা বিধিনিষেধ আরোপ
করা হয়েছে। সংসদ সদস্যদের করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে সংসদ ভবনের
মেডিকেল সেন্টারে। পাশাপাশি সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং
গণমাধ্যমকর্মীসহ সবার করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। অধিবেশন কক্ষেও আগের
অধিবেশনগুলোর মতোই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সাংবিধানিক বিধানমতে এই অধিবেশনের শুরুতে রাষ্ট্রপতি সংসদে ভাষণ দেবেন। পরে
তার ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব আনা হবে। মন্ত্রিপরিষদ এরই মধ্যে
রাষ্ট্রপতির ভাষণ অনুমোদন দিয়েছে।

সংসদ সচিবালয় সূত্র জানিয়েছে, করোনাকালে গত বছর স্বাস্থ্যবিধি মেনে সংসদের
তিনটি অধিবেশনের আয়োজন করা হয়। এসব অধিবেশনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে
তালিকা ও দিন নির্ধারণ করে সংসদ সদস্যদের বসানো হয়। আইনপ্রণেতাদের
করোনাভাইরাস পরীক্ষাও করা হয়।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, করোনা মহামারির মধ্যে
সংসদের তিনটি অধিবেশন করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তাদের। নতুন বছরের শুরুর
অধিবেশনও সেই অভিজ্ঞতার আলোকে আয়োজন করা হবে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author