শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও মসজিদের তহবিল নয় ছয়ের অভিযোগ ইলিয়াস মোল্লার বিরুদ্ধে

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও
মসজিদের তহবিল নয়ছয়ের অভিযোগও আছে ঢাকা ১৬ আসনের এমপি ইলিয়াস মোল্লার বিরুদ্ধে।
মিরপুর বাংলা স্কুল ও কলেজ এবং এগারো নম্বর কেন্দ্রীয় মসজিদ ও দুয়ারীপাড়া মসজিদকে
বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করে ফায়দা লুটছেন তিনি। এসব প্রতিষ্ঠানের কোটি কোটি টাকার
তহবিল ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ব্যবহারের অভিযোগও আছে তার বিরুদ্ধে। যদিও সব অভিযোগ অস্বীকার
করেছেন এমপ ইলিয়াস।

মিরপুর বাংলা স্কুলে
আগে সভাপতি ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ইলিয়াস মোল্লা। এখন এই পদে তিনি
বসিয়েছেন স্ত্রীকে। সবার যোগসাজসে প্রতিষ্ঠানের কোটি কোটি টাকা লুটপাট হচ্ছে বলে
অভিযোগ আছে।

স্কুলের জমি কেনার
নামে অর্থ লুট করেন এমপি ইলিয়াস মোল্লা। এ কাজে তাকে সহায়তা করেন
কয়েকজন শিক্ষক।

শিক্ষার চেয়ে
বাণিজ্যের দিকে বেশি মনোযোগী অনেক শিক্ষক। আর প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ স্বয়ং মহান এ
পেশাকে দেখেন চক ডাস্টারের ব্যবসা হিসেবে।

অভিযোগ আছে, এগারো
নম্বর কেন্দ্রীয় মসজিদের বিভিন্ন অংশ বাণিজ্যিকভাবে ভাড়া দিয়ে বিপুল অর্থ হাতিয়ে
নেয়ার অভিযোগ আছে এমপি ইলিয়াসের বিরুদ্ধে। দুয়ারীপাড়ায় অন্যের জমিতে
মসজিদ ও দোকান বানিয়ে পকেট ভারি করছেন।

লুটপাটের অভিযোগ উড়িয়ে
দিলেও এগারো নম্বর কেন্দ্রীয় মসজিদ কেন্দ্রীক দুর্নীতি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দেন
এমপি ইলিয়াস মোল্লা।

একজন মুসলিম জনপ্রতিনিধি
মসজিদের অর্থ লুটপাট কীভাবে লুটপাট করেন সে প্রশ্নের উত্তর চান সাধারণ মানুষ।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author