ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জান্নাতুল ফেরদৌসী রুপার পদত্যাগ দাবি

অপরাধীর সঙ্গে আঁতাত করায় ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জান্নাতুল ফেরদৌসী রুপার পদত্যাগ এবং শাস্তি দাবি করেছে সাধারণ মানুষ। ঠিকাদার জিকে শামীমসহ অপরাধীদের জামিন জালিয়াতিতে সম্পৃক্ত হওয়ায়, তার এই পদে থাকার কোন নৈতিক বৈধতা নেই বলেই মনে করেন তারা। তার এমন কর্মকাণ্ডে বিব্রত অ্যাটর্নি জেনারেলসহ তার সহকর্মীরাও।

৪ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট থেকে মাদক মামলায় ছয় মাস এবং ৬ ফেব্রুয়ারি অস্ত্র মামলায় এক বছরের জামিন পান কারাগারে থাকা আলোচিত ঠিকাদার জিকে শামীম। তার এই জামিনের খবর গণমাধ্যমে এলে শুরু হয় তোলপাড়। পরে, ৮ মার্চ জামিন আদেশ প্রত্যাহার করেন আদালত।

হাইকোর্টের যে বেঞ্চ থেকে জিকে শামীমকে জামিন দেয়া হয়, সেখানে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জান্নাতুল ফেরদৌসী রুপা। আসামিদের সঙ্গে আঁতাত করে জামিন জালিয়াতির অভিযোগে ৪ নভেম্বর তাকে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। জালিয়াতির ঘটনায় রাষ্ট্রীয় আইন কর্মকর্তার পদে থাকার নৈতিক বৈধতা হারিয়েছেন রূপা। তার শাস্তি ও অপসারণ দাবি করেছেন সাধারণ মানুষ।

ডেপুটি অ্যাটনির জেনারেলের ভূমিকায় বিব্রত অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন ও তার সহকর্মী অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এস এম মুনীরসহ তার সহকর্মীরা । এ নিয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজী হননি তারা।

দেশে আইনের শাসন কিংবা ন্যায় বিচার নেই, সরকারের আইন কর্মকর্তার কর্মকাণ্ড তারই প্রমাণ বলে মনে করেন বিএনপি নেতা জয়নুল আবদীন ফারুক। বলেন আইনের শাসনের অভাবেই এ ধরনের ঘটনা ঘটছে।

দুদকে নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে রূপার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে, এমনটাই আশা সবার।    

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author