সিসির পদত্যাগ দাবিতে উত্তাল মিশর

নিরাপত্তার বলয় ভেঙ্গে মিশরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাতাহ আল-সিসির পদত্যাগের দাবিতে রাজপথে নেমেছেন সাধারণ মানুষ। অবৈধ ঘরবাড়ি ভাঙার প্রতিবাদে সেনাবাহিনীর এক ঠিকাদার মোহাম্মদ আলীর ডাকে বিক্ষোভে অংশ নেন হাজারো মানুষ। পেসিডেন্টের পদত্যাগ দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন তারা। একসময়ে পুলিশের গাড়িতে আগুন দেয়া ছাড়ায় নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে পাথর নিক্ষেপ করা হয়।

রবিবার ( ২১ সেপ্টেম্বর) গিজার এলাকা থেকে সূত্রপাত ঘটলেও ধীরে ধীরে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ছে অন্যান্য এলাকায়। আচমকা সরকার বিরোধী স্লোগান নিয়ে রাস্তায় নেমে এসেছে মানুষ। দেশটির অন্যতম অঞ্চল গিজায় এ বিক্ষোভ হয়।

গিজার কাদায়া গ্রামে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করতে দেখা গেছে বিক্ষোভকারীদের। তারা এ সময় স্লোগান দেয়, ‘আল্লাহর কাছে আমাদের আর্জি এই অভ্যুত্থানকারীর (প্রেসিডেন্ট সিসি) পতন হোক।’

তবে বিক্ষোভের বিষয়টি আঁচ করতে পেরে দেশজুড়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয় বলে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা জানায়।

বিক্ষোভের কিছু ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এতে দেখা
গেছে, বিক্ষোভকারীরা ব্যানার প্রদর্শন করে মিসরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাতাহ
আল-সিসির পদত্যাগের দাবিতে স্লোগান দিচ্ছে।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে মোহাম্মদ আলি নামে একজন সাবেক সামরিক টিকাদারের ডাকে মিসরজুড়ে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে এসেছিল

ওই ঘটনার এক বছর পূর্তিতে ২০ সেপ্টেম্বর মোহাম্মদ আলি ফের সরকার বিরোধী বিক্ষোভের ডাক দিলে দেশটি জুড়ে সতর্কতা জারি করে সরকার।

বিক্ষোভের আগেই এক অভিযানে বামপন্থী নেতা আমিন আল-মাহদিসহ বেশ কয়েকজন অ্যাকটিভিস্টকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মোহাম্মদ আলি একই সঙ্গে একজন ব্যবসায়ী ও অভিনেতা। তিনি জানিয়েছিলেন, তার কোম্পানি মিসরের সেনাবাহিনীর প্রকল্পের কাজ করত।

২০১৯ সালের সেই বিক্ষোভ দমনে বড় ধরনের অভিযান চালায় সিসি সরকার।
আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের মতে, অভিযানে
শতাধিক অল্পবয়সীসহ কয়েক হাজার বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করে নিরাপত্তা
বাহিনী।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author