পুরনো নিয়মে শতভাগ ট্রেন চলাচল শুরু

স্বাস্থ্যবিধি বহাল রেখে পুরনো নিয়মে চালু হয়েছে শতভাগ ট্রেন চলাচল। অর্ধেক আসন ফাঁকা রাখার নিয়মও প্রত্যাহার করা হয়েছে। করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে বাসের পর এবার ট্রেনও গন্তব্যে ছুটবে সব আসন পূর্ণ করে। আজ বুধবার থেকে শতভাগ টিকিট বিক্রির পাশাপাশি ‘সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে’ আসন পূর্ণ করে ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেলপথ মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এখন থেকে ৫০% টিকিট অনলাইনে এবং ৫০% টিকিট কাউন্টারে বিক্রি হবে।’ শতভাগ টিকিট বিক্রির মাধ্যমে আসন পূর্ণ করে রেল চলাচল বুধবার থেকেই শুরু হবে জানিয়ে শরীফুল আলম বলেন, পাশাপাশি বসা ছাড়া অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি, যেমন মাস্ক ও স্যানিটাইজার ব্যবহার করাসহ অন্যান্য নির্দেশনা আগের মতই থাকছে।’

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে অর্ধেক আসনে নেয়া হয়েছে যাত্রী। ৩১শে মে থেকে সীমিত আকারে ট্রেন চালুর পর, আন্তঃনগর ট্রেনের সব টিকিট অনলাইনে ও মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে বিক্রি করছিল রেল কর্তৃপক্ষ। পরে ৫ই সেপ্টেম্বর থেকে স্টেশনেই লোকাল, মেইল ও কমিউটার ট্রেনের সব টিকিট বিক্রি শুরু করে। আর ১২ই সেপ্টেম্বর থেকে স্টেশনের কাউন্টার থেকে আন্তঃনগর ট্রেনের অর্ধেক টিকিট বিক্রি শুরু করেছে।

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে গত মার্চের শেষে ট্রেন চলাচলও বন্ধ করে দেওয়া হয়। এরপর গত ৩১ মে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু হয়। ৫ সেপ্টেম্বর থেকে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত বিধি-নিষেধেরর কিছু বিষয় শিথিল করে চলাচল শুরু করে যাত্রীবাহী রেল। ১২ সেপ্টেম্বর থেকে স্টেশন কাউন্টারেও ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু হয়। লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ার পর গত ১ জুন থেকে বাসও চলছিল অর্ধেক যাত্রী নিয়ে। সেজন্য বেশি ভাড়া দিতে হয়েছিল যাত্রীদের। পরিবহণ মালিকদের অনুরোধে ১ সেপ্টেম্বর থেকে সব আসন পূর্ণ করে আগের ভাড়ায় বাস চলাচল শুরু হয়েছে।

আজ থেকে মোট ২১৮টি ট্রেন চলাচল করবে এবং বাকি ১৪৪টি মেইল ও লোকাল ট্রেন ধীরে ধীরে চলাচল শুরু করবে বলে জানিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author