অনুশীলনে টাইগার কোচিং স্টাফরা

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনুমতি সাপেক্ষে ক্রিকেটারদের অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের কোচিং স্টাফরা। সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে ক্রিকেটারদের অনুশীলনে যোগ দেন তারা।

বাংলাদেশ সরকারের নিয়মানুযায়ী, করোনা পরিস্থিতিতে দেশের বাইরে থেকে এলে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকা বাধ্যতামূলক। তবে এ নিয়ম কিছুটা শিথিল করেই অনুশীলনে যোগ দেন তারা। এর আগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাছে মৌখিক আবেদন করেছিলেন খেলোয়াড়রা। লিখিত অনুমতি পেয়েই অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন ডমিঙ্গোরা।

প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো আর ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক একই ফ্লাইটে ঢাকায়
পৌঁছেছেন। তাদের একদিন পরই বাংলাদেশে পা রাখেন বোলিং কোচ ওটিস গিবসন। তবে
করোনা পরীক্ষায় ‘নেগেটিভ’ হয়েই এসেছেন তারা। এরপর ঢাকায় পৌঁছে আরেক দফা
করোনা পরীক্ষা করা হয় তাদের। তাই ১৪ দিন নয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনুমতি
নিয়ে ৭ দিনের কোয়ারেন্টিনের পর মাঠে নেমেছেন তারা। এদিকে, করোনামুক্ত
হয়েছেন ট্রেনার নিক লি। অনুশীলনেও যোগ দিয়েছেন তিনি।

তবে কোচিং স্টাফরা অনুশীলনে যোগ দিলেও বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে
ধোঁয়াশা কাটেনি এখনো। কেননা নিয়মানুযায়ী শ্রীলঙ্কা চায় ১৪ দিনের
কোয়োরেন্টিন। আর বিসিবি চায় সর্বোচ্চ ৭ দিনের কোয়ারেন্টিন। তাই এই সফর এখনো
রয়েছে দোলাচলে। 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author