১৬ সেপ্টেম্বর থেকে স্বাভাবিক হচ্ছে ট্রেন চলাচল

আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে দেশের বিভিন্ন রুটে ৮৪টি ট্রেন পুনরায় চালু
করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। করোনাভাইরাস পরবর্তী সময়ে এসে এখন পর্যন্ত
১৩৪টি ট্রেন পরিচালিত হচ্ছে। ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে চালু হওয়া ট্রেনের সংখ্যা
উন্নীত হবে ২১৮টিতে। বাকি আরো ১৪৪টি ট্রেন পর্যায়ক্রমে চালু হবে বলে
জানিয়েছেন রেলপথ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা শরিফুল আলম।

রেলপথ
মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ৩৬২টি ট্রেনের মধ্যে স্বাভাবিক সময়ে ১০২টি
আন্তঃনগর এবং বাকি ২৬০টি লোকাল, কমিউটারও মালবাহী ট্রেন চলাচল করে।

করোনাভাইরাসের
বিস্তার ঠেকাতে দীর্ঘ দুই মাসের বেশি বন্ধ ছিল ট্রেন চলাচল। দুই মাসের
বেশি বন্ধ থাকার পর ৩১ মে আটটি ট্রেন চালু করে বাংলাদেশ রেলওয়ে। ৩ জুন চালু
করা হয় আরো ১১টি ট্রেন। ১৬ আগস্ট চালু করা হয় আরো ১৩টি ট্রেন।
করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে বন্ধ করে দেয়া ট্রেনগুলো ধাপে ধাপে চালু করছে
বাংলাদেশ রেলওয়ে। এরপর দুই দফায় চালু হয় আরো ৩৭ ট্রেন। সবগুলো ট্রেন
পরিচালনা করা হচ্ছে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে। 

এতদিন ট্রেনের সব টিকিট
অনলাইনে বিক্রি করা হতো। ১২ সেপ্টেম্বর থেকে মোট বিক্রিত টিকিটের অর্ধেক
বিক্রি করা হবে স্টেশন কাউন্টার থেকে। বর্তমানে প্রতিটি ট্রেনে মোট আসন
সংখ্যার ৫০ শতাংশ টিকিট অনলাইনে বিক্রি হচ্ছে। সেই অংশ থেকে ৫০ শতাংশ
বিক্রি হবে কাউন্টারে। আসন সংখ্যার ২৫ শতাংশ বিক্রি হবে কাউন্টারে এবং বাকি
২৫ শতাংশ হবে অনলাইনে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author