ফুটপাতে রাখা নির্মাণ সামগ্রী নিলামে

ফুটপাত ও সড়ক থেকে নির্মাণ সামগ্রী জব্দ করে নিলামে তুলেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন।

সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকালে নগর ভবনে মেয়র আতিকুল ইসলামের উপস্থিতিতে এই নিলাম অনুষ্ঠিত হয়। ফুটপাত ও সড়কে রাখা অবৈধ নির্মাণসামগ্রী জব্দ করে তাৎক্ষণিক নিলামে তুলে বিক্রি করে দিয়েছে ডিএনসিসি কর্তৃপক্ষ।

অবিযানের সময় গুলশানের একটি সড়কে রাখা রড জব্দ করে তাৎক্ষণিক নিলামে ৪৯ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। পরে অন্য একটি বাড়ির সামনের সড়কে রাখা ইট জব্দ করে সাড়ে ৮ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। এঘটনায় দায়িত্বরত একজনকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে ১ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়। বলেন, জনগণের রাস্তা দখল করে ফুটপাত ও রাস্তায় নির্মাণ সামগ্রী রাখা যাবে না।

এ সময় মেয়র বলেন, ‘ডিএনসিসির ১০টি এলাকায় একযোগে আজ সারাদিন সাঁড়াশি অভিযান চলবে- সেটা আমি আগেই বলেছিলাম। বড় বড় অট্টালিকা নির্মিত হবে, এতে কোনো সমস্যা নেই। বরং এটি স্বাভাবিক ঘটনা। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, আইনের তোয়াক্কা না করে সড়ক ও ফুটপাতে ইট, বালু, রড রেখে দেবেন। এর ফলে ফুটপাতগুলো ভেঙে যাচ্ছে, সংকুচিত হচ্ছে।’

মেয়র বলেন, আজ থেকে রাস্তায় অবৈধভাবে রাখা নির্মাণসামগ্রী যেখানেই পাওয়া যাবে, দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী সেগুলো জব্দ করে তাৎক্ষণিক নিলাম করা হবে। আমি হুঁশিয়ার দিয়ে বলতে চাই, আজ থেকে সপ্তাহে একদিন এ ধরনের সাড়াশি অভিযান চলবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।”

উল্লেখ্য, গত ৪ সেপ্টেম্বর ডিএনসিসি এলাকার
ফুটপাত ও সড়কে নির্মাণ সামগ্রী, স্থায়ী বা অস্থায়ী দোকান, অবকাঠামো
ইত্যাদি পাওয়া গেলে তাৎক্ষণিকভাবে তা নিলামে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন
ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। এরই অংশ হিসেবে আজ সাঁড়াশি অভিযানে নেমে
প্রথমবারের মতো ফুটপাতে রাখা সামগ্রী নিলামে বিক্রি করলো ডিএনসিসি।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author