আখাউড়া দিয়ে পণ্য পরিবহন শুরু করেছে ভারত

ট্ ট্রানজিট চুক্তির আওতায় বাংলাদেশের ভু-খন্ড ব্যবহার করে আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে সড়ক পথে পণ্য পরিবহন শুরু করেছে ভারত। তবে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা বলছেন, দু’দেশের সম্পর্ক বৃদ্ধির জন্য ট্রানজিট দেয়া হলেও তারা অনেকটাই ক্ষতিগ্রস্ত হবেন, কমবে রপ্তানি আয়। এজন্য কার্যকর পদক্ষেপ আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। ব্রাহ্মণবাড়িয়া

২০১৮ সালের ২৫ অক্টোবর বাংলাদেশের বন্দর ব্যবহার করে পণ্য পরিবহন চুক্তি করে ভারত। সে অনুযায়ি প্রথম চালানে রড ও ডাল আসে। কোলকাতার বন্দর থেকে জাহাজ এসে চট্টগ্রাম বন্দরে নোঙর করে। পরে সড়ক পথে রড ও ডাল বোঝাই ৪টি ট্রেইলর আখাউড়া বন্দরে পৌছানের পর ত্রিপুরায় পৌছায়। ট্রানজিট চালানের জন্য ফি নির্ধারণ করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড।

পন্য ট্রানজিট চলমান থাকলেও বাংলাদেশ থেকে রপ্তানীর ধারাবাহিকতা ধরে রাখার আহ্বান জানিয়েছেন ব্যবসায়ী নেতারা।

চলমান ট্রানজিটে
দু’দেশের ব্যবসায়ীদের সুবিধার কথা বলা হলে ও বাংলাদেশী ব্যবাসায়ীরা
ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন।

দু’দেশের ব্যবসায়ীরা লাভবান হওয়ার
পাশাপাশি পরিবহন খরচ কম ও দুরুত্ব কমে আসার কথা জানান ভারতীয় কাস্টমস কর্মকর্তা।

ভারতের বিভিন্ন শর্তের
কারণে অনেক পণ্য ভারতে রপ্তানী সম্ভব হবে না। এতে কমে যাবে বৈদেশিক
মুদ্রা, এমনটি মনে করছেন ব্যবসায়ীরা।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author