চট্টগ্রামে ধর্মীয় স্থাপনা ধ্বংসে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলায় রয়েছে আর্ন্তর্জাতিক উপাসনালয় ও ধুতাঙ্গ কুঠির মন্দির। প্রতিবছর বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বিদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দানোত্তম কঠিন চীবর অনুষ্ঠানে দেশ বিদেশ থেকে আসা বৌদ্ধ ভিক্ষুগণ প্রার্থনায় অংশ নেন। অনেকদিন ধরে বিখ্যাত এ উপসনালয়টি ধংসের ষড়যন্ত্র চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ২০১৪ সাল থেকেই বৌদ্ধধর্মের কিছু লোকজনই ষড়যন্তের সাথে জড়িত। ধুতাঙ্গ ভান্তে শিষ্য আত্মদ্বীপ ভিক্ষুর অভিযোগ ২০১৮ সাল থেকে প্রশাসনের সহযোগিতায় প্রতিষ্ঠানটি ধংসের চেষ্টা চলছে। তবে প্রশাসন বলছে বিষয়টি কমিটি নিয়ে দ্বন্দ।

চট্টগ্রামের  রাউজান উপজেলার উরকিরচর ইউনিয়নের শ্রীমৎ শীলানন্দ স্থবির, ধুতাঙ্গ ভান্তের ২২তম প্রব্রজ্যা দিবস উপলক্ষে প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে গেল ২৬ জুন সীমিত আকারে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তবে কাউকে অনুষ্ঠানে প্রবেশ করতে দেয়নি এলাকার কিছু লোক। এসময় ভক্তদের উপর হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন ধুতাঙ্গ ভান্তে শিষ্য আত্মদ্বীপ ভিক্ষু। ধুতাঙ্গ কুঠির মন্দির নিয়ে ষড়যন্ত্র বন্ধে প্রশাসনের সহযোগিতা চাইলেন ধুতাঙ্গ ভান্তে।

রাউজান থানার অফিসার ইর্নচাজ কেপায়েত উল্যাহ বলেন, কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্ব থাকায় প্রশাসন কোন ধরনের হস্তক্ষেপ করছে না।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author