একদিনে ১ লাখ ৬ হাজার করোনাক্রান্ত

বিশ্বজুড়ে এক লাখ ৬ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। যা একদিনে সর্বোচ্চ রেকর্ড বলে জানিয়েছে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা। এ পর্যন্ত আক্রান্ত সংখ্যা ৫২ লাখ ছুঁই ছুঁই করছে। আর মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে তিন লাখ ৩৪ হাজার। চিকিৎসা নিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২০ লাখ ৮২ হাজার মানুষ। যুক্তরাষ্ট্রে মারা গেছে ৯৬ হাজার ৩৫৪ জন। ব্রাজিল ও রাশিয়ায় বাড়ছে আক্রান্ত আর প্রাণহানি। বিপরীতে ইউরোপে ধীরে ধীরে পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে। এরই মাঝে আবারও চীনের বিরুদ্ধে তথ্য গোপনের অভিযোগ করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

করোনায় বিশ্বে আক্রান্ত ছাড়িয়েছে অর্ধকোটি। এক মাস আগেও এই সংখ্যা ছিলো অর্ধেকেরও কম। এক মাসেই দ্বিগুণ হয়েছে আক্রান্ত আর প্রাণহানি। শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই আক্রান্ত ১৬ লাখের বেশি। মারা গেছে ৯৬ হাজারের বেশি মানুষ। আক্রান্ত ও প্রাণহানিতে সবার ওপরে দেশটি। এদিকে, চীন করোনায় আক্রান্ত ও প্রাণহানির তথ্য সংখ্যা গোপন করেছে বলে ফের দাবি করেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রাণহানির তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে যুক্তরাজ্য, দেশটিতে ৩৬ হাজারের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। আক্রান্ত হয়েছে আড়াই লাখের বেশি মানুষ।

ব্রাজিলে লাশের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। মৃতের সংখ্যা ২০ হাজার ছাড়িয়েছে, আর আক্রান্ত ৩ লাখের বেশি। একমাস আগেও যা ছিলো ৪০ হাজারের ঘরে। রাশিয়াতেও বাড়ছে আক্রান্ত। প্রাণহানি তুলনামূলক কম হলেও আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে পুতিনের দেশ। দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার পরিমাণ বাড়ছে।

ইতালি, স্পেন, জার্মানি, ফ্রান্সে কমেছে আক্রান্ত আর প্রাণহানি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকায় লকডাউন শিথিলের পাশাপাশি স্বাভাবিক হচ্ছে জীবনযাত্রা। ১৫ জুন থেকে খুলে দেয়া হচ্ছে গ্রিসের পর্যটনকেন্দ্রগুলো। ভারতে আক্রান্ত আর মৃতের সংখ্যা বাড়লেও এখনও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে দাবি দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রীর। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ১৮ হাজারের বেশি, মারা গেছে সাড়ে তিন হাজারের বেশি।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author