বরগুনায় দোকানপাট সীমিত আকারে খুলেছে

করোনার প্রাদুর্ভাবে
প্রায় দুই মাস বন্ধ থাকার পর বরগুনায় দোকানপাট সীমিত আকারে খুলে দেয়া হয়েছে। তবে মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্ব ও  স্বাস্থ্যবিধি। দোকানগুলোতে উপচেপড়া ভিড় সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন দোকানিরা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতাও নেই। এতে করোনার সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ছে
উল্লেখ করে ফের বন্ধের দাবি জানালেন ব্যবসায়ীরা।

বরগুনা শহরের গার্মেন্টস, কাপড়, কসমেটিকস ও জুতার দোকানগুলোতে প্রচন্ড
ভিড়। একই অবস্থা অন্য উপজেলার মার্কেট গুলোতেও। একে অন্যের  গা ঘেঁষে করছেন কেনাকাটা। বেশিরভাগরই ব্যবহার করছেন না
মাস্ক ও গ্লাভস। একই অবস্থা দোকানিদেরও। আবার অনেকে মাস্ক
পরলেও তা নাক ও মুখের বাইরে থুতনিতেই ঝুলিয়ে রাখছেন। খোলার আগেই দোকানের
সামনে অবস্থান নেন শতশত মানুষ। ক্রেতারা বলছেন, সামাজিক দূরত্ব ও 
স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার চেষ্টা করলেও বাজারে অস্বাভাবিক ভিড়
থাকায় তা মানা যাচ্ছেনা।

বিক্রেতা বলছেন ক্রেতাদের
চাপ সামলাতে তারা হিমসিম খাচ্ছেন। ক্রেতাদের বিরুদ্ধে সামাজিক দুরত্ব
না মানার অভিযোগও করেন ব্যবসায়ীরা।যেভাবে মানুষ ভিড়
করছে তাতে করোনার সংক্রমণ এড়ানো যাবে না বলে মনে করছেন সচেতন মহল। আর নিজেদের নিরাপত্তার জন্যই দোকানপাট বন্ধের দাবি জানালেন জেলা চেম্বারের সাধারণ
সম্পাদক।

ব্যবসায়ী ও ক্রেতারা
সামাজিক দুরত্ব না মানলে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলেন জেলা প্রশাসক।বরগুনা জেলায় করোনা
ভাইরাসে শনিবার পর্যন্ত ৪২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। যার মধ্য মারা গেছেন
২ জন।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author