দেশের বাজারে কমছে ব্রয়লার মুরগি

দেশের বাজারে কমছে ব্রয়লার
মুরগির পরিমাণ। ব্যবসায়ীরা বলছেন, পূর্ণতা পাওয়ার আগেই বাজারজাত করায় কাঙ্ক্ষিত স্বাদ
মিলছে না। তাই কমে গেছে ব্রয়লার বিক্রি। বিশেষজ্ঞের মতে, ৩৫ দিন বয়স হওয়ার আগে
যেসব ব্রয়লার বিক্রি হয় তা মোটেও স্বাস্থ্যসম্মত নয়। খামারিদের মুনাফালোভী মনোভাব
ছাড়তে সরকারকে কঠোর তদারকির তাগিদ দিয়েছেন তারা।

সার বেঁধে থাকা দোকানগুলোতে ব্রয়লার
ও সোনালি মুরগির ছড়াছড়ি। দামের বিচারে সোনালির দাম যথেষ্ট বেশি। তারপরও এ মুরগিতে
খরিদ্দারের আগ্রহ বেশি কেবলমাত্র স্বাদের ভিন্নতার কারণে।

তথ্যমতে, গেল বছর প্রতি সপ্তাহে
সোনালি মুরগির চাহিদা ছিল ৫০ লাখ। এবছর তা পৌঁছেছে ১ কোটিতে। আর ব্রয়লারের
চাহিদা নেমে এসেছে এক চতুর্থাংশ অর্থাৎ ১ কোটি ২০ লাখে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, কেবলমাত্র
চাহিদার কারণে পূর্ণতা পাওয়ার আগেই বাজারজাত করা হচ্ছে ব্রয়লার মুরগি। তাই
পরিপূর্ণ স্বাদ মিলছে না।

বিশেষজ্ঞের মতে, ঝুঁকি এড়াতে অন্তত ৩৫ দিনের আগে ব্রয়লার বাজারজাত করা ঠিক না। এক্ষেত্রে প্রথম ২৮ দিন খাওয়াতে হবে স্টার্টার ও গ্রোয়ার ফিড। শেষ সপ্তাহে দিতে হবে ফিনিশার।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author