ঢাকা-পটুয়াখালী নৌরুটে নাব্য সঙ্কট প্রকট আকার ধারণ করেছে। এতে অসংখ্য ডুবোচর সৃষ্টি হয়ে প্রায়ই মাঝ নদীতে আটকা পড়ছে নৌযান। সময়মত গন্তব্যে পৌছাতে না পারায় ভোগান্তি বাড়ছে যাত্রীদের। নাব্য ফেরাতে নদী খননের কাজ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

দক্ষিনের জেলাগুলোতে কম খরচে আরামদায়ক ভ্রমন ও পণ্য পরিবহনের অন্যতম মাধ্যম নৌপথ। ঢাকা-পটুয়াখালী রুটে প্রতিদিন ৭ থেকে ৮ টি যাত্রিবাহি ডাবল ডেকারের লঞ্চসহ চলাচল করছে অর্ধশতাধিক নৌ-যান।  কিন্তু নাব্যতা সংকটে ডুবোচরে আটকে ব্যাহত হচ্ছে নৌ-যানগুলোর স্বাভাবিক চলাচল। পটুয়াখালী টার্মিনাল ঝিলনা,কবাই,বগা ও লোহালিয়ার মোড়ে নাব্যতা সংকট প্রকট আকার ধারন করেছে।

জোয়ার না আসা পর্যন্ত ডুবোচরে আটকে পড়া এসব লঞ্চ গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ছাড়তে পারে না। এতে ভোগান্তির শিকার যাত্রীদের পাশাপাশি লঞ্চ কর্তৃপক্ষও। বিভিন্ন স্থানে সিগন্যাল বাতি বিকল থাকায় দেখা দিচ্ছে দুর্ঘটনার আশঙ্কা।

ইতিমধ্যে নদীতে ড্রেজিংয়ের কাজ চলছে বলে জানান এ কর্মকর্তা। শিগগিরই নৌযান চলাচল স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসবে বলেও আশা জানান তিনি।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author