‘টু ফিঙ্গার’ পদ্ধতি নিষিদ্ধ

ধর্ষিতার মেডিকেল পরীক্ষায়, ‌টু ফিঙ্গার পদ্ধতি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিকেলে বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি এ কে এম সাহিদুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন। একইসঙ্গে মেডিকেল পরীক্ষার সময় ধর্ষিতার স্বজন এবং নারী চিকিৎসক, পুলিশ ও নার্স রাখতে বলা হয়েছে। এছাড়া ধর্ষণ মামলার বিচারকালে আইনজীবী কখনও ভিকটিমকে অমর্যাদাকর প্রশ্ন করতে পারবেন না বলেও রায়ে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ২০১৩ সালের ৮ অক্টোবর ৬টি মানবাধিকার সংগঠন এবং দুজন চিকিৎসক এ বিষয়ে রিট করেন। ২০১৬ সালে এ পদ্ধতিকে সেকেলে ও অনৈতিক অ্যাখ্যা দিয়ে হাইকোর্টে মতামত উপস্থাপন করেন পাঁচজন ফরেনসিক মেডিকেল বিশেষজ্ঞ।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment