ব্যাঙ অর্থনৈতিকভাবে অবদান রাখছে কৃষি ও আমিষ জাতীয় খাবার হিসেবে। রক্ষা করছে পবিবেশের ভারসাম্য। অথচ প্রকৃতি থেকে হারিয়ে যাচ্ছে উপকারী এ প্রাণিটি। ব্যাঙ কমে যাওয়ার কারণ হিসেবে জলাধার কমে যাওয়া ও কীটনাশকের প্রভাবকেই দায়ি করছেন প্রাণিবিদরা। সম্মিলিত উদ্যোগে এক থেকে দেড় দশক কাজ করলেই ব্যাঙ উপযোগী পরিবেশ ফিরিয়ে আনা সম্ভব বলে জানিয়েছেন তারা।

বিশ্বে চার হাজার ৭৪০ প্রজাতির ব্যাঙ রয়েছে। এরমধ্যে ১৯৮০ সালের পর হারিয়ে গেছে অন্তত ২শ’ প্রজাতির ব্যাঙ। আর বাংলাদেশে ব্যাঙ আছে ৪৯ প্রজাতির। এদের অধিকাংশই বিলুপ্তির পথে। দিন দিন বরেন্দ্র প্রকৃতি থেকেও হারিয়ে যাচ্ছে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষাকারী এ প্রাণিটি।

ব্যাঙ প্রতিদিন তার শরীরের সমান ওজনের পোকামাকড় খায়। ক্ষতিকর পোকামাকড় কমায় কৃষিখাত লাভবান হয়। এতে রক্ষা পায় খাদ্য শেকলও। ডেঙ্গু, টাইফয়েড, ম্যালেরিয়ার মতো রোগবাহী কীট পতঙ্গ খেয়ে এসব রোগ নিয়ন্ত্রণেও ভূমিকা রাখে। অথচ এদের বিলুপ্তি ঠেকাতে নেই সম্মিলিত উদ্যোগ।

ব্যাঙের উপস্থিতিই প্রমাণ করে পরিবেশ কতটা নির্মল রয়েছে। কৃষি, প্রকৃতি, পরিবেশের প্রয়োজনেই ব্যাঙ রক্ষার তাগিদ সংশ্লিষ্টদের।

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment