রাউন্ড রবিন পর্বের বাধা পেরিয়ে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের ফাইনালে বাংলাদেশ। যেখানে প্রতিপক্ষ হিসেবে অপেক্ষায় ভারত। আর নিজ দেশের ৭০তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত নিদাহাস ট্রফির আয়োজক শ্রীলঙ্কা এখন দর্শক। পরাজয় দিয়ে মিশন শুরু হলেও, ট্রফি জয়ের চূড়ান্ত লড়াইয়ে বাংলাদেশ-ভারত দু’দলই।

৭০তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ক্রিকেটের বিশেষ আয়োজন নিদাহাস ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ আয়োজন করে শ্রীলঙ্কা। উদ্বোধনী ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে শুভসূচনা করলেও পরের তিন ম্যাচ হেরে আসরে দর্শক বনে যায় স্বাগতিকরা। অন্যদিকে পরাজয় দিয়ে মিশন শুরু হলেও, ফাইনালে ওঠে বাংলাদেশ-ভারত।

এ যেন এক দাঁত ভাঙা জবাব। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতের কাছে টাইগারদের পরাজয়ের পর, বাংলাদেশকে সিরিজে আমন্ত্রণ জানানোয় বোর্ডের সমালোচনা করেছিলেন লঙ্কান সাংবাদিকরা। সেই দলকেই দুই ম্যাচে হারিয়ে ফাইনালে পা রাখে টিম বাংলাদেশ।

টি-টোয়েন্টিতে যেখানে টাইগারদের সর্বোচ্চ দলীয় স্কোর ছিলো ১৯৩, সেখানে লঙ্কানদের দেয়া ২১৫ রানের টার্গেটও মামুলি করে দেয় বাংলাদেশ। ব্যক্তিগত পারফরমেন্সে সেরা পাঁচ রান সংগ্রাহকের দুজন করে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার এবং একজন আছে ভারতের। যে তালিকায় ২০৪ রান নিয়ে শীর্ষে শ্রীলঙ্কার কুশল পেরেরা ও ১৯০ রান নিয়ে দুই নম্বরে টাইগার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

ব্যক্তিগত ব্যাটিং পারফর্মেন্সে ভারত পিছিয়ে থাকলেও, এগিয়ে আছে বোলিংয়ে। সেরা পাঁচ উইকেট সংগ্রাহকের চার জনই ভারতের। অন্যজন বাংলাদেশের। ৭ উইকেট নিয়ে শীর্ষে ওয়াশিংটন সুন্দর ও ৬ উইকেট নিয়ে তিন নম্বরে কাটার মাস্টার মুস্তাফিজ।

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment