মিরপুরের পল্লবীতে পাশাপাশি তিনটি বস্তিতে আগুন লেগে পুড়ে গেছে কয়েক হাজার ঘর। গৃহহীন হয়ে পড়েছে অন্তত ২৫ হাজার মানুষ। রোবরার রাতে আগ্নিকান্ডের ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিসের ২৩টি ইউনিট চার ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। দাহ্য বস্তু থেকেই আগুনের সূত্রপাত বলে ধারণা ফায়ার সার্ভিসের।

মাত্র ছয় হাজার টাকা বেতনের চাকরি করেন পোশাকশ্রমিক আমেনা। ওভারটাইম করে জোটে আরো দুতিন হাজার। রোববার বেতন পেয়ে চাল ডাল সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কিনে খুশিমনে ঘরে ফেরা আমেনা এখন যেন নির্বাক হয়ে গেছে।

আমেনার মতো হাজারো মানুষকে নি:স্ব করে দিয়েছে রোববার রাতের ভয়াবহ অগ্নিকান্ড। আগুনে পুড়ে ঘরের সব জিনিসপত্র।

রাত আড়াইটার দিকে একটি বস্তি থেকে আগুনের সূত্রপাত। পরে তা ছড়িয়ে পড়ে আরো দুটি বস্তিতে। সংকীর্ণ রাস্তার কারণে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সময়মতো উপস্থিত হতে পারেননি বলে অভিযোগ বস্তিবাসীদের।

বস্তিবাসীদের অধিকাংশই গার্মেন্টসকর্মী হওয়ায় তাদের ঘরে থাকা দাহ্য পদার্থ থেকেই আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে ফায়ার সার্ভিস।

 

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment