রেকর্ড গড়ে হারের বৃত্ত ভাঙলো বাংলাদেশ। নিদাহাস টি-টোয়েন্টি সিরিজে নিজেদের ইতিহাসে বেশি রান তাড়া করে জিতলো টাইগাররা। স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েছে ৫ উইকেটে। টাইগারদের সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জয় পাওয়ার তালিকায় পঞ্চম। কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে লঙ্কানদের ছুড়ে দেয়া ২১৫ রানে টার্গেটে তামিম-লিটন-মুশফিকের ব্যাটিং তাণ্ডবে ২ বল হাতে রেখে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ সবশেষ জয়ের স্বাদ পেয়েছিলো গেল বছরের এপ্রিলে। তাও আবার কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে। এরপর আরো পাঁচটি ম্যাচের সব ক’টিই পরাজয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে টাইগাররা। নিজেদের হারিয়ে খুজে ফেরা সেই তামিম মুশফিকরা এবার ভাঙলো হারের বৃত্ত। নিদাহাস ট্রফিতে স্বাগতিকদের দেয়া ২১৫ রানে টার্গেটে ২ বল হাতে রেখে ৫ উইকেটের জয় তুলে নেয় টিম বাংলাদেশ।

সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে টস জিতেই বল হাতে তুলে নেয় মাহমুদুল্লার দল। তবে, সিদ্ধান্তের প্রতি খুব বেশি সুবিচার করতে পারেননি টাইগার বোলাররা। শুরু থেকেই লঙ্কান ওপেনারের ব্যাটিংয়ে তাণ্ডবে দিশেহারা হয়ে পড়ে সফরকারীরা। দলীয় ৫৬ রানে গুনাথিলাকাকে ব্যক্তিগত ২৬ রানে সাজঘরে ফেরান মুস্তাফিজ।

১৪তম ওভারে মেন্ডিসকে ৫৭ ও শানাকাকে শুন্য রানে সাজঘরে ফেরান টাইগার অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ। ততোক্ষণে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৪২ রান। এরপর কুশল পেরেরার ৭৪ ও থারাঙ্গার ৩৪ রানে ভর  করে ৬ উইকেটে ২১৪ রান করে শ্রীলঙ্কা। মুস্তাফিজ ৩টি ও মাহমুদুল্লাহ নেন দু’টি উইকেট।

রানের পাহাড় টপকানোর লড়াইয়ে লঙ্কানদের প্রতি উত্তর দিতে থাকে দুই টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস। ৫ ওভার ৫ বলে ৭৪ রানের জুটিতে লিটন সাজঘরে ফেরেন ব্যক্তিগত ৪৩। এরপর সৌম্যের ২৪, মাহমুদুল্লার ২০ রানের সঙ্গে মুশফিকের হার না মানা ৭২ রানে ভর করে ২ বল হাতে রেখে ৫ উইকেটের জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

এই জয় শুধু নিজেদের হারিয়ে খুজে পাওয়ার জয় নয়। সবচেয়ে বেশি রান তাড়া করে জয় তুলে নেয়ার রেকর্ডে টাইগারদের স্থান এখন পাঁচে। সেই সঙ্গে নিজেদের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জয় তো বটেই।

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment