জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে আবেদন করেছেন তার আইনজীবীরা। আবেদনে ৩১টি যুক্তি তুলে ধরা হয়েছে। এদিকে, সাজার বিরুদ্ধে করা আপিলের গ্রহণযোগ্যতা ও জামিন আবেদনের ওপর শুনানি কিছুক্ষণের মধ্যে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে এ শুনানি হবে। এরই মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদককে আপিল আবেদনের কপি দিয়েছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। মঙ্গলবার বিকেলে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় ১ হাজার ২২৩ পৃষ্ঠার আপিল দায়ের করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। এতে প্রাথমিকভাবে মোট ৪৪টি যুক্তি তুলে ধরা হয়েছে। এছাড়া আপিল আবেদনের ওকালতনামায় খালেদা জিয়ার পক্ষে মোট ২৮জন আইনজীবীর স্বাক্ষর রয়েছে। ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে ৫ বছর এবং অন্য ৫ আসামীকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা জরিমানা করেন বিচারিক আদালত।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment