সাম্বা নাচের তালে দুলছে গোটা ব্রাজিল। দেশটির বাৎসরিক কার্নিভাল সাম্বা উৎসব দেখতে সারাবিশ্বের প্রায় চার লাখ পর্যটক জড়ো হয়েছেন রিও ডি জেনেরিও শহরে। রংবেরংয়ের পোষাকপরা ব্রাজিলিয়ানদের নাচের তালে মেতেছে গোটা দেশ। প্রতি বছর ইস্টারের আগে চলে ৫ দিনের এ উৎসব।

 

ঐতিহ্যবাহী জমকালো এ কার্নিভাল লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলেকে দিয়েছে এক ভিন্ন পরিচিতি। অংশগ্রহণকারী ও দর্শনার্থী বিচারে বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় লোকজ উৎসব এটি। লাল-নীল-হলুদসহ নানা রং ও ঢংয়ের পোষাক এবং বাদ্যের তালে তালে ব্রাজিলিয়ানদের নাচ দেখতে প্রতি বছর দেশটিতে ছুটে আসেন অসংখ্য পর্যটক।

উৎসব ঘিরে এখন ব্যস্ত সময় পার করছে রিও ডি জেনেরিও, সাও পাওলোসহ বিভিন্ন শহরের সাম্বা স্কুলগুলো। বাৎসরিক এ উৎসবে যোগ নিজেদের সেরাটা তুলে ধরার চেষ্টায় ব্যস্ত সাম্বা শিল্পীরা।

উৎসবটি দেশজুড়ে উদযাপন হলেও সবচেয়ে জমকালো ও বর্ণিল আয়োজন হয় রিওডি জেনেরিও শহরে। ১৭২৩ সাল থেকে রিওতে এ উৎসব উদযাপন হয়ে আসছে। তাই ব্রাজিলের সাম্বা উৎসবটির রিও কার্নিভাল নামেই বেশি পরিচিত।

 

সাম্বা উৎসব দেখতে প্রতি বছর শুধু এ শহরেই ছুটে আসেন ৪ লাখের মত বিদেশি পর্যটক। ১৩ ফেব্রুয়ারি সেরা সাম্বা দলের নাম ঘোষণা ও ১৭ ফেব্রুয়ারি বিজয়ী দলের প্যারেডের মধ্য দিয়ে শেষ হবে জমকালো এ কার্নিভাল।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment