মুন্সীগঞ্জে টমেটোর বাম্পার ফলন হয়েছে। অন্য ফসলের তুলনায় লাভ বেশি হওয়ায় কৃষকরাও দিন দিন ঝুঁকছেন টমেটো চাষে। আর এতে সব ধরনের সহযোগিতা করছে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। তবে হিমাগারের অভাবে ফলন পচে নষ্ট হওয়ার শংকায় চাষীরা।

শীতকালীন টমেটো গেলো কয়েক বছর ধরে মুন্সীগঞ্জের কৃষকের মুখে হাসি ফুটিয়েছে। লাভ বেশি হওয়ায় দিন দিন বাড়ছে চাষ। সদরসহ গজারিয়া, টঙ্গীবাড়ী, সিরাজদিখান ও শ্রীনগরে টমেটো চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা।

প্রতি বিঘায় খরচ ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা। তা বাদ দিয়ে বিঘা প্রতি অন্তত ৫০ হাজার টাকা লাভ থাকছে কৃষকের। সংরক্ষণ করা গেলে আরও বেশি লাভ হতো বলে জানান তারা।

টমেটো চাষে সব ধরনের সহযোগিতা দেয়ার কথা জানিয়েছে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। জেলায় এবার ২০৯ হেক্টর জমিতে টমেটোর আবাদ হয়েছে। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে এসব টমেটো যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment