এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে ব্যবস্থার অংশ হিসেবে সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে সব কোচিং সেন্টার। এতে বিপাকে পড়েছেন এইচএসসি ও বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা। স্থায়ীভাবে কোচিং সেন্টার বন্ধে পাশাপাশি প্রশ্নফাঁস রোধে নজরদারি বাড়ানোর তাগিদ দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

প্রশ্নফাঁস প্রসঙ্গে প্রতিবারই ঘুরেফিরে আসে কোচিং সেন্টারের সংশ্লিষ্টতা। তাই প্রশ্নফাঁস রোধে শুক্রবার থেকে বন্ধ করা দেয়া হয় সব কোচিং সেন্টার।

তবে, প্রশ্নফাঁস রোধে শুধুমাত্র কোচিং সেন্টার বন্ধ কোন সমাধান নয় বলে অভিমত শিক্ষার্থীদের। অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিকের মতে, প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে, প্রশ্ন প্রণয়ন ও বিতরণের প্রতিটি ক্ষেত্রে নজরদারি বাড়ানোর কোন বিকল্প নেই।

কোচিং সেন্টারগুলো স্থায়ীভাবে বন্ধ করার ব্যবস্থা নিতে সরকারকে পরামর্শও দেন তিনি।

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment