বিজয়ের পাঁচদিন পর মুক্ত হয় নাটোর জেলা

নাটোর মুক্ত দিবস আজ। ১৯৭১ সালে নাটোর থেকেই দেশের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের যুদ্ধ পরিচালনা করত পাকবাহিনী। ১৬ ডিসেম্বর দেশের অন্যান্য স্থানে বিজয় অর্জিত হলেও নাটোর হানাদার মুক্ত হয় ২১ ডিসেম্বর। ঢাকার বাহিরে একমাত্র নাটোরেই আত্মসমর্পন দলিলে স্বাক্ষরের মাধ্যমে পাকসেনাবাহিনী অস্ত্রসহ আত্মসমর্পন করে।

একাত্তরে নাটোর ছিল পাকিস্তান সেনাদের দুই নম্বর সামরিক হেড কোয়াটার। উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে পাকিস্তান সেনারা ১৬ ডিসেম্বর নাটোরে জড়ো হতে থাকে। ২১ ডিসেম্বর দিঘাপতিয়া রাজবাড়ি চত্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে ৯টি ট্যাংক, ২৫টি কামান ও ১০ হাজার ৭৭৩টি ছোট অস্ত্রসহ পাকিস্তানী বাহিনীর ১৫১ জন অফিসার, ১৯৮ জন জেসিও, সাড়ে পাঁচ হাজার সেনা, ১৮শ’ ৫৬ জন আধাসামরিক বাহিনীর সদস্য আত্মসমর্পন করে।

সে থেকে দিনটিকে নাটোর মুক্ত দিবস পালিত হচ্ছে সরকারি-বেসরকারিভাবে। শহীদ মুক্তিযোদ্ধারের স্মরণে বিভিন্ন স্থাপনা ছাড়াও তাদের পরিবারের জন্য সরকারিভাবে নেয়া হয় নানা পদক্ষেপ।

বাঙ্গালীর বিজয়ের ইতিহাসের এ দিনকে মূল্যায়ন করে জাতীয়ভাবে পালন করার দাবি নাটোরবাসীর।

 

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment