আজ নাগাসাকি ‍দিবস

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের দুঃসহ স্মৃতিবিজড়িত নাগাসাকি দিবস আজ। ৭৫ বছর আগে যুদ্ধের শেষদিকে আগস্টের ৬ ও ৯ তারিখে জাপানের হিরোশিমা এবং নাগাসাকি শহরে পরমাণু বোমা হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষ দিকে ১৯৪৫ সালের ৬ আগস্ট হিরোশিমা বিশ্বের প্রথম পারমাণবিক বিস্ফোরণের সাক্ষী হয়। ‘লিটল বয়’ নামক ওই বোমা বিস্ফোরণে নগরীটিতে প্রাণ হারায় প্রায় ১ লাখ ৪০ হাজার মানুষ।

এই ধ্বংসযজ্ঞে জাপান যখন দিশেহারা, তখনই ১৯৪৫ সালের ৯ আগস্ট নাগাসাকিতে আরও একটি পারমাণবিক বোমা ফাটায় যুক্তরাষ্ট্র। তাতে মৃত্যু হয় প্রায় ৭৫ হাজার মানুষের। এক পলকেই মাটিতে মিশে যায় নাগাসাকির অধিকাংশ এলাকা। হিরোশিমা ও নাগাসাকিতে পারমাণবিক বোমা বিস্ফোরণে আহত অবস্থায় যারা বেঁচে ছিলেন তাদের অধিকাংশই পরবর্তীতে ক্যানসারসহ অনেক দুরারোগ্য রোগে ভুগেছেন। বোমার তেজস্ক্রিয়তার বিকলাঙ্গ হন অনেকে।

বিশ্বে সেই প্রথম কোন যুদ্ধে গণবিধ্বংসী মারণাস্ত্র ব্যবহার করা হয়। এতে হিরোশিমা শহরের সাড়ে তিন লাখ মানুষের মধ্যে ১ লাখ ৪০ হাজার বোমা বিস্ফোরণেই মারা যায়।

আর নাগাসাকিতে মারা যায় ৭৪ হাজার মানুষ। পরমাণু বোমার তেজস্ক্রিয়তার শিকার হয়ে পরবর্তীতে আরও বহু মানুষ মারা যায়। ওই বোমা হামলার পর এশিয়ায় দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরিসমাপ্তি ঘটে। ১৪ই আগস্ট জাপান নিঃশর্তভাবে মিত্র বাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author