কুলিয়াডাঙ্গা সীমান্তে ২২ বাংলাদেশি  উদ্ধার

ভারতে পাচারকালে সাতক্ষীরার কুলিয়াডাঙ্গা সীমান্তে ২২ বাংলাদেশি নারী-পুরুষ ও শিশুকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) ভোররাতে সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশ তাদেরকে উপজেলার বাঁশদহা ইউনিয়নের কুলিয়াডাঙ্গা গ্রামের মানবপাচারকারী দালাল মোকলেসুরের বাড়ির দুটি কক্ষ থেকে উদ্ধার করে। পুলিশ জানিয়েছে এদের মধ্যে ১৫ জনের বাড়ি নডাইল জেলায়। অন্যদের বাড়ি রংপুর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায়।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান জানান, গোপনসূত্রে খবর পেয়ে কুলিয়াডাঙ্গা গ্রামের মোকলেসুরের বাড়ি থেকে ২২জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় মোকলেসের স্ত্রী নাসিমা খাতুনকে গ্রেফতার করা হয়।

ওসি আরও জানান, দালাল মোকলেস ও তার স্ত্রী নাসিমা ভারতে ভালো কাজ দেওয়ার কথা বলে তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। সুবিধাজনক সময়ে তাদেরকে সীমান্ত পার করে ভারতে নিয়ে যাবার কথা ছিল। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে।

সদর থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান জানান, গোপন তথ্যে ভোরে উপজেলার কুলিয়াডাঙ্গা গ্রামে পাচারকারী মোকলেসের বাড়ি থেকে তাদেরকে উদ্ধার করা হয়। এ সময়, মোকলেসকে না পেয়ে তার স্ত্রী নাসিমা খাতুনকে আটক করে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ১০ নারী, ১০ পুরুষ ও ২জন শিশু রয়েছে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author