রাজধানীতে কিছুতেই বন্ধ হচ্ছে না ঝুঁকিপূর্ণ রাস্তা পারাপার

রাজধানীর প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ও রাস্তার মোড়ে ফুটওভার ব্রিজ থাকা সত্ত্বেও মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তার উপর দিয়েই পারাপার হচ্ছে। এতে প্রতিদিনই মৃত্যুর ঘটনাসহ ছোট-বড় দুর্ঘটনা ঘটছে। নগরবাসীকে ফুটওভার ব্রিজ দিয়ে চলাচলে উদ্বুদ্ধ করার জন্য ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনে ইতোমধ্যে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

এরমধ্যে ফুটওভার ব্রিজকে ফুল দিয়ে সাজানো, রাতের বেলায় পর্যাপ্ত আলো ও ফুটওভার ব্রিজগুলো সারাক্ষণ তত্ত্বাবধায়নের জন্য লোক রাখা হয়েছে। ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহার না করায় বিভিন্ন অংকে জরিমানা করা হয়েছে। তবুও মানুষ ফুটওভার ব্রিজ দিয়ে চলাচল না করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলন্ত গাড়ির সামনে দিয়ে রাস্তা পারাপার হচ্ছে প্রতিদিন।

কেবল সময় না থাকার অজুহাতে ঝুঁকি নিয়ে দল বেঁধে ব্যস্ত রাস্তা পারপার করছেন তারা। এ বিষয়ে নির্বিকার ট্রাফিক পুলিশও। দায়িত্বরতরা বললেন, মানুষ সচেতন না হলে শৃঙ্খলা আসবে না।

নীচ দিয়ে রাস্তা পারাপারের
ন্যুনতম সুযোগ থাকলেই, তার পূর্ণ ব্যবহার করছে নগরবাসী। এটি ঘটছে ট্রাফিক পুলিশের
সামনেই। কিন্তু নির্বিকার তারা।

এবিষয়ে একাধিক পথচারীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রায় দেড়তলা পর্যন্ত সিঁড়ি বেয়ে, আবার নিচে নামতে কষ্ট হওয়ার কারণে মানুষ ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহার এড়িয়ে চলেন। এছাড়া যৌনকর্মী, হিজড়া, ছিনতাইকারী ও ভিক্ষুকসহ হকারদের কারণে ব্রিজের পথ সরু হয়ে যাওয়ায় গায়ে গায়ে ধাক্কা লাগায় অধিকাংশ নারী ব্রিজে উঠতে চায় না।

রাজধানীর বেশিরভাগ সিগন্যাল
পয়েন্টেই আছে ফুটওভার ব্রিজ। কিন্তু ব্যবহার করার লোকের বড়ই অভাব। জনগণকে ফুটওভার
ব্রিজে পারাপারে আগ্রহী করতে নিচের রাস্তায় লোহার বেড়িকেড দেয়া জরুরি বলে মত সচেতন
মহলের।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author