লালমনিরহাটে ভূমিহীনদের জন্য পাকা বাড়ি

মুজিববর্ষে পাকা বাড়ি পাচ্ছে লালমনিরহাটের ভূমিহীন ৯৭৮টি পরিবার। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার পেয়ে খুশি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারগুলো।

জানা গেছে, ২ শতাংশ খাস জমির ওপর প্রতিটি টিন শেড বিল্ডিং ঘর নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। ৩৯৪ বর্গফুটের ওই বাড়িতে নির্মাণ করা হচ্ছে দুটি কক্ষ, রান্নার জায়গা ও একটি টয়লেট।  

হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিন ও এসিল্যান্ড শামীমা সুলতানা নিয়মিত নিমার্ণাধীন ঘরগুলো তদারকি করছেন। তাদের এ কাছে সহযোগিতা করেছেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস ও উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদফতরের সহকারী প্রকৌশলীরা। 

এ ছাড়া পাটগ্রাম উপজেলায় ১২৩টি, কালীগঞ্জ উপজেলায় ১৫০টি, আদিতমারী
উপজেলায় ১৩০টি ও সদর উপজেলায় ১৫০টি গৃহ নির্মাণ হচ্ছে। তবে পাটগ্রাম
উপজেলায় এ প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

গড্ডিমারী ইউপির ভূমি ও গৃহহীন জয়নব বেগম বলেন, স্বামী নেই। দুই মেয়েকে নিয়ে মানুষের বাড়িতে একটা চালা করে আছি। হঠাৎ খবর পেলাম আমার নামে পাকা ঘর ও জমি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। আমার আর বাড়ি নিয়ে চিন্তা নেই। 

স্কুল শিক্ষক লুৎফর রহমান বলেন, তিস্তা নদীর কারণে এ এলাকার অনেক পরিবার প্রতি বছর গৃহহীন হয়ে পড়েন। রাস্তার ধারে অনেকেই চালা করে কষ্টে দিন কাটায় যা দেখে কষ্ট হয়। ওই পরিবারগুলো বসত বাড়ি পাচ্ছে শুনে খুব ভালো লাগছে। 

স্বামী পরিত্যাক্তা এক সন্তানের জননী খোদেজা বেগম জানান, আমার কোন ঘরবাড়ি ছিলনা, এখন আমি ঘর পেয়ে খুব খুশি। লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার মধ্যগড্ডিমারী গ্রামের ঝুঁপড়ি ঘরেই গৃহহীন খোদেজার ঠিকানা। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার পাকাবাড়ি পাচ্ছেন খোদেজা। এতে খুশির যেন সীমা নেই তার।

খোতেজার মতোই পাকাবাড়ি পাওয়ার তালিকায় থাকা ৯৭৮টি পরিবারের সদস্যরা উচ্ছসিত। সরকারের আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর মাধ্যমে খাস জমিতে ঘর তৈরি করছে স্থানীয় প্রশাসন।  মাথা গোঁছার ঠাঁই হওয়া পরিবারে বইছে আনন্দের বন্যা।

এসব ঘর যথাসময়ে বরাদ্দ পাওয়াদের বুঝে দেয়ার কথা জানান হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামিউল আমিন।

এসব বাড়ি নির্মানে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। গৃহহীনদের জন্য পাকাবাড়ি নির্মাণকাজ কঠিনভাবে তদারকি করা হচ্ছে। অনিয়মের কোন সুযোগ নেই বলে জানান জেলা প্রশাসক আবু জাফর। জানান, লালমনিরহাটে গৃহহীন পরিবার ৫৮১৩টি পর্যায়ক্রমে সব পরিবারকে এ কার্যক্রমের আওতায় আনা হবে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author