দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে নেপালকে আমন্ত্রণ

দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলার জন্য নেপালকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলো বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। এতে সম্মতি জানিয়েছে নেপাল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন এই সময়ের মধ্যে জাতীয দলের ম্যাচ আয়োজনের চেষ্টা করছিলো। সেই চেষ্টায় কিছুটা সফলও ফেডারেশন। আগামি নভেম্বরে নেপালের বিপক্ষে দু’টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলবে জেমি ডে’র শিষ্যরা।

বাফুফে ফিফা উইন্ডোতে প্রীতি ম্যাচ খেলার জন্য শ্রীলঙ্কা ও নেপালকে প্রস্তাব দিয়েছিলো। আগামি ৭ নভেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর ফিফা উইন্ডো আছে। এই সময় নেপাল জামাল ভুঁইয়াদের বিপক্ষে ম্যাচ খেলতে রাজি হয়েছে।

নেপালের সরকারও দেশটির ফুটবল এসোসিয়েশন অনুমতি দিয়েছে। এরই মধ্যে
অনুশীলন ক্যাম্প শুরুর প্রস্তুুতি নিচ্ছে নেপাল জাতীয় দল। তবে ম্যাচগুলো
কোন ভেন্যুতে, কত তারিখে হবে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

অল নেপাল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের তথ্য সূত্র দিয়ে এই ম্যাচ দু’টির কথা
জানিয়েছে গোলনেপালডটকম। তারা জানিয়েছে, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দুই ম্যাচের
জন্য নেপাল জাতীয় ফুটবল দলকে অনুশীলন শুরুর অনুমতি দিয়েছে দেশটির স্পোর্টস
কাউন্সিল।

নেপালের বিপক্ষে ম্যাচ দু’টি নিয়ে জানতে চাইলে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক মো. আবু নাইম সোহাগ সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা নেপালকে দুটি ম্যাচ খেলতে ঢাকায় আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম। তারা খেলতে সম্মত হয়েছে। তারা সরকারের কাছ থেকে অনুমতিও নিয়েছে। তবে ম্যাচ দুটি কবে কবে হবে সেটা আগামী সপ্তাহে চূড়ান্ত হবে। করোনার কারণে ফ্লাইট সিডিউলের বিষয় আছে, কোয়ারেন্টাইনের বিষয় আছে। সবকিছু বিবেচনা করেই তারিখ ঠিক করবো। তারপর কোচ জেমিকে ঢাকায় আসতে বলবো অনুশীলন শুরু করতে।’

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে গত মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে জাতীয় দলের খেলা। মাঝে কাতার বিশ্বকাপের বাছাই পুনরায় শুরুর হওয়ার সম্ভাবনা জাগায় ক্যাম্প শুরু করেছিল দল। কিন্তু একই কারণে বিশ্বকাপ বাছাই পিছিয়ে যাওয়ায় সে ক্যাম্পও বন্ধ করে দেয় বাফুফে।

এসময় ২০২০ সালে বাছাইয়ের কোনো ম্যাচ হবে না বলে জানায় ফিফা ও এএফসি।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author