আবার সেই ইনিংস পরাজয়ের লজ্জা।

বাংলাদেশের কপালে আবারো ঘুরে এলো সেই ইনিংস পরাজয়ের লজ্জা। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের শুরু থেকেই মনে হচ্ছিলো এই ধরনের ধারণা। সেই ধারণাই আজ সত্যি হলো। মুস্তাফিজকে ৭ রানে বোল্ড করে ম্যাচ ও সিরিজের ইতি টানলেন ফেলুকওয়ায়ো।

টস হেরে ব্যাটিং পেয়ে ৪ উইকেটে ৫৭৩ রানে ইনিংস ঘোষণা করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে করেছিল ১৪৭। ফলো অনের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ১৭২।

ইনিংস ও ২৫৪ রানের জয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ জিতে নিল ২-০ ব্যবধানে। ২০১৪ সালের জানুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার কাছে ইনিংস ও ২৪৮ রানে হারার পর এই প্রথম ইনিংস ব্যবধানে হারল বাংলাদেশ।

সব মিলিয়ে টেস্টে বাংলাদেশের এটি চতুর্থ সর্বোচ্চ হার। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সবচেয়ে বড় হার এটিই। ২০০৮ সালে চট্টগ্রামে প্রোটিয়াদের জয় ছিল ইনিংস ও ২০৫ রানে।

প্রথম টেস্টে ৩৩৩ রানে হারের পর ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় জানিয়েছিল দল। কিন্তু এবার পরাজয়টি হলো আরও বিব্রতকর।

পরাজয়ের ধরনটিই সবচেয়ে বেশি হতাশার। ইনিংস ব্যবধানে হার বলেই নয়, পরিকল্পনাহীন বোলিং, দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যাটিং, খাপছাড়া নেতৃত্ব আর ভীষণ দৃষ্টিকটু শরীরী ভাষা-সব মিলিয়েই এই টেস্ট হয়ে থাকবে বাংলাদেশের ক্রিকেটের বাজে বিজ্ঞাপন।

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment