করোনা ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিল রাশিয়া

বৈশ্বিক মহামারি করোনার থাবায় যখন প্রতিদিন বিশ্বের বহু মানুষের প্রাণহানি হচ্ছে, তখনই প্রথম করোনার ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে রুশ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

বিশ্বের সবাই অপেক্ষায় ভ্যাকসিনের। মানুষের মনে ঢুকে গেছে ভ্যাকসিন এলেই মুক্তি মিলবে করোনার। কিন্তু সেই ভ্যাকসিন কতটা কার্যকরী হবে, সেটা নিয়েও দ্বন্দ্ব দেখা দিয়েছে। তবে এই সংকটকালীন পরিস্থিতিতে নিজেদের দেশে প্রথম ভ্যাকসিন তৈরির সফলতার কথা জানালেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) টেলিভিশনে সম্প্রচারিত মন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক শেষে এ তথ্য নিশ্চিত করেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। বলেন তাঁর দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম ভ্যাকসিন তৈরি হয়েছে। পুতিন বলেন, “এটি বিশ্বের প্রথম করোনার ভাইরাস ভ্যাকসিন। ভ্যাকসিনটি তার এক মেয়ের শরীরে প্রয়োগ করা হয়েছে বলেও জানান পুতিন।

রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ঘোষণা করেন যে, খুব শীঘ্রই এই ভ্যাকসিনের উৎপাদন রাশিয়ায় শুরু করা হবে এবং প্রচুর পরিমাণে ভ্যাকসিনের ডোজ তৈরি করা হবে। পাশাপাশি পুতিন আরও জানিয়েছেন যে, তাঁর মেয়ের করোনায় আক্রান্ত ছিলেন, তারপরে তাঁকে এই নতুন ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছিল। তাঁর তাপমাত্রা কিছু সময়ের জন্য বেড়েছে তবে এখন সে পুরোপুরি ভাল আছেন।

এদিকে, এই ভ্যাকসিন তৈরির দৌড়ে এগিয়ে আছে অক্সফোর্ড ভ্যাকসিন। ভারতেও চলছে এর পরীক্ষা। এমনকি ভারতেও দুটি ভ্যাকসিন তৈরির কাজ চলছে। বর্তমানে বিশ্বে করোনার ভাইরাস ভ্যাকসিন তৈরির জন্য পরীক্ষা চলছে।

উল্লেখ্য, রাশিয়ায় করোনায় ১৫ হাজার মানুষের মৃত্যু এবং প্রায় ৯ লাখ আক্রান্ত হয়েছে। রাশিয়া এমন সব দেশগুলির মধ্যে রয়েছে যেখানে সবচেয়ে বেশি করোনার ভাইরাস পরীক্ষা করা হয়েছে। রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও মন্ত্রিসভার আরও কয়েকজন সদস্যও করোনার ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author