ashura-2015

কারবালার শোকাবহ ঘটনাবহুল পবিত্র আশুরা আজ। মুসলিম বিশ্বে ত্যাগ ও শোকের প্রতীকের পাশাপাশি বিশেষ পবিত্র দিবস হিসেবে দিনটি পালন করা হয়। হিজরি ৬১ সনের এই দিনে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর দৌহিত্র হজরত ইমাম হোসাইন (রা.) ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা ইয়াজিদের সৈন্যদের হাতে কারবালার ময়দানে শহীদ হন। এ ছাড়াও এই দিনটিতে অনেক ফজিলতময় ঘটনা ঘটেছে। প্রতিবছরের মতো এবারও শিয়া সম্প্রদায় কারবালার শোকাবহ ঘটনার স্মরণে পুরান ঢাকার হোসেনী দালান থেকে তাজিয়া মিছিল বের করবে। এদিকে, মামলার বাদী আর সাক্ষী হাজির না হওয়ায় স্থবির হয়ে পড়েছে ২০১৫ সালে হোসেনী দালানের হামলার মামলা। এদিকে, পবিত্র আশুরা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসন পৃথক বাণী দিয়েছেন।

8526e465c4ed862ef903ae9912af5a88-57fdf4f744fd7

প্রায় এক হাজার ৩৩৫ বছর আগে এই দিনে মহানবী হজরত মুহাম্মদ সা.-এর দৌহিত্র হজরত ইমাম হোসেন রা. কারবালা প্রান্তরে শহীদ হন।

এ ছাড়া ১০ মহররম আশুরার দিন মহান আল্লাহতায়ালা পৃথিবী সৃষ্টি করেছেন আবার এদিন কেয়ামত ঘটাবেন। এদিন হজরত ইব্রাহিম আ. নমরুদের অগ্নিকুণ্ড থেকে রক্ষা পেয়েছেন, হজরত ইউনুস আ. মাছের পেট থেকে মুক্তি পান।

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া পৃথক বাণী দিয়েছেন।

hussain-2

এদিকে, মামলার বাদী আর সাক্ষী হাজির না হওয়ায় স্থবির হয়ে পড়েছে হোসেনী দালানের সন্ত্রাসী হামলার মামলা। তাজিয়া মিছিলে বোমা হামলার মামলায় ১০ জেএমবি সদস্যের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয়া হয় ওই বছরের ৩১ মে। স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় চার আসামি। মামলার বাদীসহ সাক্ষীর সংখ্যা ৪৬ জন।

২০১৫ সালের ২৩ অক্টোবর রাজধানীর পুরান ঢাকায় হোসেনী দালানের হামলায় সাজ্জাদ হোসেন নামে এ কিশোর নিহত ও শতাধিক আহত হন।

 

 

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment