মাঠে ফিরছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ

অপেক্ষার প্রহর শেষ। অবশেষে মাঠে ফিরছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফুটবল। শুরুটাও ধামাকা ম্যাচে। রাউন্ড অফ সিক্সটিনের সেকেন্ড লেগে রাতে মুখোমুখি ম্যানচেস্টার সিটি আর রিয়াল মাদ্রিদ। এছাড়াও য়্যুভেন্তাসের খেলা আছে অলিম্পিক লিওর বিপক্ষে। দুই ম্যাচই শুরু বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়।

১৯৯৬ সালের পর আরও একবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জিততে চাইলে আজ ঘরের মাঠে জ্বলে উঠতেই হবে য়্যুভেন্তাসের। কেননা, ফ্রেঞ্চ ক্লাব লিওর মাঠে ফার্স্ট লেগ যে ১ গোলে হেরে গিয়েছিলো ওরা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের রোমাঞ্চকর ম্যাচে, ইতিহাদে রিয়াল মাদ্রিদকে আতিথ্য দেবে ম্যানচেস্টার সিটি। প্রথম লেগে বার্নাব্যুয়ে লস ব্লাঙ্কোদের ২-১ গোলে হারানোয় মনস্তাত্ত্বিকভাবে এগিয়ে সিটিজেনরাই। তবুও অভিজ্ঞতাকে পুঁজি করে ঘুরে দাঁড়াতে চায় রিয়াল শিবির।

কোচ জিদানের দলে জায়গা হয়নি গ্যারেথ বেল-হামেস রদ্রিগেজের। আর কার্ড সমস্যায় দলে নেই মাদ্রিদের গ্ল্যাডিয়েটর সার্জিও রামোস। তাই স্পটলাইট থাকবে ক্যাসেমিরো, মদ্রিচ, ক্রুস আর বেনজেমার ওপরই। শঙ্কা আছে সিটি শিবিরেও। ইনজুরি কারণে দলে থাকবে না আগুয়েরো। দু’দলের আগের সাত সাক্ষাতে মাত্র দুবার শেষ হাসি হাসে ম্যানসিটি।

হাইভোল্টেজ আরেক ম্যাচে, ইতালি সেরা য়্যুভেন্তুসের প্রতিপক্ষ ফরাসি জায়ান্ট অলিম্পিক লিঁও। প্রথম পর্বে লিঁওর মাঠে ১-০ গোলে হারের কারণে, আসরে টিকে থাকতে জয় চায় জুভিরা। ছেড়ে কথা বলতে নারাজ লিও।

সেরি আ-য় উড়তে থাকা য়্যুভেন্তুসের হঠাৎই ছন্দপতন। শেষ ৪ ম্যাচের তিনটিতেই হার। তাই নতুন করে রণকৌশল সাজাতে হবে কোচ মাউরিজিও সারিকে। এ পর্যন্ত দু’দলের পাঁচবারের সাক্ষাতে য়্যুভেন্তুসের জয় তিনটি।

একটু পেছনে ফেরা যাক। মাঠে দর্শক থাকতো, ফুটবলে ছিল স্বাভাবিকতা। ঘরের মাঠে ইস্কোর গোলে নির্ভার ছিল রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের শেষদিকে ভোজবাজির মত পাল্টে যায় দৃশ্যপট। জেসুসকে দিয়ে একটা গোল করিয়ে পরে নিজেও একটা করেন ডি ব্রুইনা। জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সিটি তবে এরপর থেকেই শুরু অপেক্ষার প্রহর গোণা।

ইতিহাদের সেকেন্ড লেগ। মাঝে পেরিয়েছে ৫ মাসেরও বেশি। এই
সময়টায় শুধু ফুটবল না বদলে গেছে পুরো পৃথিবীর চিত্রই। করোনায়
স্বাস্হ্যবিধি মানাটাই সব চেয়ে বড়। মাঠে তাই আসে না দর্শক। খেলোয়াড় থেকে
স্টাফ সবাইকেই তাই মানতে হয় নানা নিয়ম-কানুন।

সিটির জন্য কাজটা সহজ। রিয়ালের সাথে ড্র হলে তো কথাই নাই, এমনকি ১-০ গোলে হারলেও সিটিই খেলবে কোয়ার্টার। সমস্যা একটাই ইনজুরিতে নাই সার্জিও আগুয়েরো, এছাড়া সাসপেনশনে আছেন বেনজামিন মেন্ডি।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author