স্মার্ট কার্ড পাচ্ছেন প্রবাসীরা

করোনা মহামারিতে থমকে থাকা প্রবাসী বাংলাদেশিদের স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার কাজ আবারও শুরু করতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। পরিস্থিতি বিবেচনায় মালয়েশিয়াতে স্বল্পসময়ে স্মার্টকার্ড দেয়া শেষ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, সম্প্রতি প্রবাসীদের হাতে পরিচয়পত্র বা স্মার্ট কার্ড তুলে দেওয়ার জন্য ইসির সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর ভার্চুয়াল বৈঠক করেন। বৈঠকে এনআইডি অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাইদুল ইসলাম, ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ, নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহাম্মদ খানসহ আরও অনেকে অংশ নেন।

মালয়েশিয়ায় করোনা পরিস্থিতি অন্যসব দেশের তুলনায় কিছুটা ভালো। তাই সবার আগে এখানেই কার্যক্রম শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। এর আগে করোনার কারণে প্রবাসে বাংলাদেশিদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) বা স্মার্টকার্ড সরবরাহের কাজ স্থগিত রাখে ইসি। যা এখনো বহাল রয়েছে।

জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাইদুল ইসলাম জানান, করোনাভাইরাসের কারণে প্রবাসে স্মার্ট কার্ড দেওয়ার কার্যক্রম বন্ধ ছিল। বর্তমানে কিছু দেশে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় পরিকল্পনা মোতাবেক শিগগিরই বিদেশে টিম পাঠানো হবে। আর খুব তাড়াতাড়ি মালয়েশিয়াতে টিম পাঠানো যাবে। কারণ সেখানে অন্যান্য দেশের তুলনায় করোনা পরিস্থিতি ভালো।

উল্লেখ্য,  বর্তমানে যুক্তরাজ্য, দুবাই, মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসীদের জন্য অনলাইনে পোর্টাল তৈরি করে ভোটার হওয়ার আবেদন নিচ্ছে ইসি। গত ১২ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাজ্য প্রবাসীদের অনলাইনের ভোটার করে নেওয়ার কার্যক্রম শুরু করে সংস্থাটি। এর আগে ২০১৯ সালের ১৮ নভেম্বর দুবাই প্রবাসীদের মধ্যে এ কার্যক্রম শুরু করা হয়। তার আগে একই বছর ৫ নভেম্বর মালয়েশিয়ায় অবস্থারত বাংলাদেশি নাগরিকগদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তি ও স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়ার জন্য কার্যক্রম শুরু করে নির্বাচন কমিশন। 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author